• প্রচ্ছদ » » বিশ্বে এমন কোনো অপকর্ম নেই, যা আমেরিকা করেনি দুঃখের বিষয় যে আমেরিকা তার অন্যায় অপকর্মের জন্য কখনো অনুতপ্ত কিংবা দুঃখপ্রকাশ করেনি


বিশ্বে এমন কোনো অপকর্ম নেই, যা আমেরিকা করেনি দুঃখের বিষয় যে আমেরিকা তার অন্যায় অপকর্মের জন্য কখনো অনুতপ্ত কিংবা দুঃখপ্রকাশ করেনি

আমাদের নতুন সময় : 15/01/2020

মিজানুর রহমান মিলন : ইরান কর্তৃক ইউক্রেনের যাত্রীবাহি বিমান ভ‚পাতিত নিয়ে বিশ্বে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। নিঃসন্দেহে ইরান এটা বড় ধরনের ভুল করেছে। ইরান তা স্বীকারও করেছে, ক্ষমা চেয়েছে এবং ক্ষতি পূরণও দেবে বলেছে। আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকগণের অনেকেই বলেছেন, এই ধরনের পরিস্থিতিতে এরকম ভুল হওয়া অস্বাভাবিক কিছু নয় এবং আমেরিকাও এর দায় এড়াতে পারে না। কথা সত্য আমেরিকাও এর দায় এড়াতে পারে না। আমেরিকা আন্তর্জাতিক নিয়ম নীতির কোনো ধার ধারে না। আমেরিকা নিজেকে এই বিশ্বের অঘোষিত ঈশ্বর মনে করে। তার কথাই যেন আইন। না হলে দেশে দেশে যুদ্ধ, সরকার উৎখাত, ক্যু, পাল্টা ক্যু, হত্যা, গণহত্যা, আঁততায়ীর মতো হত্যা, সম্পদ লুন্ঠন বছরের পর বছর যুগের পর যুগ ধরে করে কীভাবে? বিশ্বে এমন কোনো অপকর্ম নাই, যা আমেরিকা করেনি। দুঃখের বিষয় যে আমেরিকা তার অন্যায় অপকর্মের জন্য কখনো দুঃখপ্রকাশ যেমন করেনি, তেমনি অনুতপ্তও হয়নি। আমেরিকা নামের এই তথাকথিত ঈশ্বর ১৯৮৮ সালে পারস্য উপসাগরে ইরানের যাত্রীবাহি একটি বিমান মিসাইল ছুড়ে ধ্বংস করে এবং ২৯০ জন যাত্রীর সকলেই নিহত হয়। আমেরিকা পরবর্তী সময়ে ভুল স্বীকার করলেও এই ঘটনার জন্য দুঃখপ্রকাশ করেনি। উল্টো সেই নেভি সদস্যদের পুরস্কৃত করেছিলো। প্রায় একই রকম ঘটনা ঘটায় সোভিয়েত ইউনিয়ন ১৯৮৩ সালের ১ সেপ্টেম্বরে। আলাস্কা অভিমুখি কোরিয়ার একটি যাত্রীবাহি বিমান সোভিয়ত ইউনিয়নের শাখালিন আইল্যান্ডে এয়ার টু এয়ার মিসাইল ছুড়ে বিমানটিকে ধ্বংস করে সোভিয়েত ইউনিয়ন। বিমানের ২৬৯ জন যাত্রীর সকলেই নিহত হয়। সোভিয়েত ইউনিয়ন দীর্ঘদিন পর্যন্ত এই ঘটনা অস্বীকার করে। নানা তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে পরবর্তী সময়ে সোভিয়েত ইউনিয়ন স্বীকার করতে বাধ্য হলেও সোভিয়েত ইউনিয়ন দাবি করে বিমানটিকে তারা আমেরিকার গোয়েন্দা বিমান মনে করেই মিসাইল ছুড়ে। অবশ্য ওই সময় আমেরিকা ও সোভিয়েত ইউনিয়ন ঠাÐা যুদ্ধ চলছিলো। তাই সোভিয়েত ইউনিয়নের এরকম মনে করা অস্বাভাবিক কিছু ছিলো না। কিন্তু ভুল তো ভুলই। এখন যেমন ইরানের সঙ্গে আমেরিকার ঠাÐা যুদ্ধ এবং ছায়া যুদ্ধ চলছে। ইরানের ক্ষেত্রেও প্রায় একই ধরনের ভুল হলো। কিন্তু ভুল তো ভুলই। এই জন্য কথায় বলে-রাজায় রাজায় যুদ্ধ হয় উলুখাগড়ার প্রাণ যায়। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]