• প্রচ্ছদ » » নাঈম ভাই ‘আবার আপনি সম্পাদক হন’


নাঈম ভাই ‘আবার আপনি সম্পাদক হন’

আমাদের নতুন সময় : 21/01/2020

 যায়নুদ্দিন সানী : নাঈম ভাইয়ের জন্মদিন। কথাটা জানার পর ইচ্ছা হলো তাকে নিয়ে কিছু লিখি। স্মৃতি হাতড়াতে গিয়ে আবিষ্কার করলাম, নাঈম ভাইয়ের সঙ্গে আমার প্রথম পরিচয়টা ঠিক কবে, আই মিন, সালটা মনে নেই। শুধু মনে আছে, প্রথম পরিচয় ফোনে। তার পত্রিকায় ততোক্ষণে আমার বেশ কয়েকটা কলাম ছাপা হয়ে গেছে। তিনি ফোন করেছিলেন, ‘আমি ভালোই লিখি’ এই তথ্যটা জানাতে। তার অফিসে যাওয়ার নিমন্ত্রণও জানালেন। এরপর তার বাসায় যাই। আর সেখানেই তার সঙ্গে প্রথম আলাপ। এরপর সম্পর্ক ক্লোজ হতে সময় লাগেনি।  ঠিক কলামিস্ট সম্পাদক সম্পর্ক নয়। গল্প বলা আর শ্রোতার সম্পর্ক। তার টাইপটাই সম্ভবত এমন, আড্ডাবাজ। আর ভাÐারেও আছে হরেক রকম গল্প। সেসব আমাকে বলতেও তার তেমন কোনো আপত্তি নেই। আমার সঙ্গে সুন্দর একটা সম্পর্ক তৈরির পেছনে কারণ সম্ভবত সেটাই মূল কারণ। তার গল্প বলার উৎসাহটা। এমন মানুষের সঙ্গে আলাপের সুবিধা হচ্ছে আলাপচারিতায় খুব বেশি কথা বলার প্রয়োজন হয় না। আলাপ এমনিতেই এগিয়ে যায়। হেনো টপিক নেই, যে বিষয়ে তার কাছে কোনো গল্প নেই।

মুহূর্তে আড্ডা জমে যায়। তার সঙ্গে আলাপের এই সুবিধাটাই আমি বেশি এঞ্জয় করি। জীবনের আনাচে-কানাচে যেসব অভিজ্ঞতা তার হয়েছে সেসব নিয়ে আলাপ করতেও তার তেমন আপত্তি নেই। তসলিমা নাসরিনের প্রথম কবিতার বই প্রকাশের গল্প থেকে শুরু করে তার সাংবাদিকতায় ভর্তির আসল কারণ যে ছিলো একজন সুন্দরী নারী, সে গল্পও তিনি আমার সঙ্গে শেয়ার করেছেন। যার ফলে ঢাকা গেলেই আর যার সঙ্গে দেখা করি বা না করি, তার সঙ্গে একবার দেখা করার আপ্রাণ চেষ্টা করি।
ফিনিশ। তার সম্পর্কে আর কোনো ভালো বক্তব্য আমার নেই। আছে একরাশ অভিযোগ। বছরের পর বছর একটা খোলসের ভিতরে ঢুকে বসে আছেন। নামকা ওয়াস্তে পত্রিকাটার সম্পাদক হয়ে বসে আছেন। পত্রিকার দিকে এক ফোঁটা মনোযোগ নেই। মাথায় অনেক আইডিয়া আছে, কিন্তু সেটা একজিকিউত করার জন্য যতোটা সময় পত্রিকাকে দেয়া দরকার, সেটা কেন যেন তিনি দিচ্ছেন না। বয়স, হতাশা, না অন্য কোনো কারণ? তার সঙ্গে বিভিন্ন সময়ের আলাপচারিতায় বোঝার চেষ্টা করেছি। কখনো সরাসরিই বলেছি, ‘কেন উঠেপড়ে লাগছেন না’? লাভ হয়নি। নিজের অবস্থানের জন্য যেসব যুক্তি তিনি দেখিয়েছেন, সেসব খুব শক্ত যুক্তি মনে হয়নি। হয়তো ‘ইন বিটুইন লাইনে’ তিনি অন্য কিছু বলতে চেয়েছিলেন, কিন্তু আমি খুব ভালো বুঝতে পারিনি। একজন লেম্যান হিসেবে আমার মাথায় সাধারণ কিছু সমস্যার কথা এসেছে। টাকার সমস্যা আছে হয়তো কিংবা আগের অভিজ্ঞতার কারণেই হয়তো চাইছেন না কোনো ধনাঢ্য ব্যক্তির কাছে মালিকানা বন্ধক দিতে। আবার এটাও হতে পারে উৎসাহ হারিয়ে ফেলেছেন। কারণ যাই হোক, সেটা নিয়ে আমি আগ্রহী নই। আমার চাওয়া একটাই, সমস্যার সমাধান বের করুন। সমস্যার অজুহাতে এমন নিষ্ক্রিয় বসে থাকা ব্যাপারটা আমার ভালো লাগেনি। আমার খারাপ লাগার এই ব্যাপারটা আমি গোপনও রাখিনি। তার পত্রিকাতেই তাকে কটাক্ষ করে আমি কলাম লিখেছি। স্পষ্ট করেই বলেছি, এভাবে জীবন্মৃত হয়ে বেঁচে আছেন কেন? হয় পুরোপুরি মরে যান আর নয়তো জেগে উঠুন। টকশোগিরি করা আর অফিসে এসে চিল্লাচিল্লি করা আপনার কাজ নয়। বলাই বাহুল্য, আমি ব্যর্থ হয়েছি। তিনি এখনো পত্রিকা নিয়ে খুব সিরিয়াস নন। দেশের রাজনৈতিক অবস্থা এর কারণ? না ‘আর আমাকে দিয়ে হবে না’ এটা আসল কারণ, জানি না। তবে একটা ব্যাপার ফিল করেছি, তিনি দ্বিধায় আছেন। কী করবেন সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না। আর তার অবস্থা নিয়ে অভিযোগ করলে আজব আজব সব ফর্মুলা বের করেন মাঝে মাঝে। সেসব কাজে দিচ্ছে কি না, জানি না। শুধু এটুকু বুঝতে পারছি, ‘আমাদের নতুন সময়’ নিয়ে এখনো তিনি সিরিয়াস নন। পত্রিকা ব্যবসার খুঁটিনাটি যেহেতু আমি জানি না, তাই ঠিক কোথায় সমস্যা, আর কি এর সমাধান, সেটাও আমার অজানা। শুধু এটুকু জানি, তিনি সিরিয়াস হলে সুন্দর একটা পত্রিকা পাওয়া যাবে। স্পেশালি এই সময়ে, যখন পত্রিকার জগতে একটা বিচ্ছিরি অবস্থা বিরাজ করছে। ভালো পত্রিকা বের করার মেধা যে তার আছে সেটা তিনি আগেও প্রমাণ করেছেন। এরশাদ সাহেবের বদান্যতায় জেলেও গিয়েছেন। সো, তার কাছে একটা সুন্দর পত্রিকা এখনো আশা করা যায় হয়তো। মিডিয়া জগতে এখন ভয়ংকর একটা অবস্থা চলছে। খবর তো অনেক আগেই ‘পত্রিকার’ হাতছাড়া হয়েছে। কলামও এখন ডিজিটাইজড হওয়ার পথে। সোশ্যাল মিডিয়াকে কীভাবে মোকাবেলা করবে কিংবা আদৌ করবে কি না, পত্রিকায় কী কী কন্টেন্ট থাকবে, এমন অনেক ব্যাপারের ফয়সালা হয়ে যাবে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে। এই পরিস্থিতি কীভাবে মোকাবেলা করবেন, আদৌ করবেন কি না, সে ব্যাপারে তাকে খুব দ্রæত ডিসাইসিভ হতে হবে। জানি না তিনি কী করবেন, তবে যদি সিদ্ধান্ত নেন উঠে দাঁড়াবেন, তখন দেখার ব্যাপার হবে এমন পরিস্থিতিতে থেকে একটা দুর্দান্ত পত্রিকা বের করার কৌশল কতোটা তিনি জানেন। সেটা দেখার অপেক্ষায় থাকলাম। শুভ কামনা। লেখক : চিকিৎসক




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]