• প্রচ্ছদ » » বই মেলায় বিসিএস গাইড মার্কা বই বেস্ট সেলার হয়ে যাচ্ছে দেখলে হাসিমুখে কেঁদে দিতে ইচ্ছা করে


বই মেলায় বিসিএস গাইড মার্কা বই বেস্ট সেলার হয়ে যাচ্ছে দেখলে হাসিমুখে কেঁদে দিতে ইচ্ছা করে

আমাদের নতুন সময় : 13/02/2020

জান্নাতুন নাঈম প্রীতি :  গবেষক আরিফ রহমান ৭ ফেব্রæয়ারি সাক্ষাৎকার নিতে এসেছিলেন। তিনি জিজ্ঞেস করেছিলেন, মোটিভেশান বইয়ের ব্যাপারে আমার মন্তব্য কী? আমি তাকে বলেছিলাম, আপনি কী জানেন এ দেশের মানুষের সঙ্গে বিজনেস করার মূল জিনিস কি? উত্তর হচ্ছে হতাশা। যে দেশের ছিয়াত্তর পার্সেন্ট কর্মক্ষম বেকার আর সরকারের পিএসসির আয়ের সবচেয়ে বড় উৎস ‘বিসিএস ফরম’, সেই দেশে হতাশার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসা আর নেই। চাকরি নেই, টাকা নেই, কেমন করে বিসিএস পাস করবেন, কেমন করে কথার মাঝে স্মার্ট প্রমাণ করতে তেত্রিশটা ইংরেজি শব্দ বলবেনÑ এ বই এ দেশে সবচেয়ে বেশি বিকোবে সেইটায় অবাকের কিছু নেই। অবাক হলো এগুলোকে সাহিত্য তৈরির ক্ষেত্রে অর্থাৎ একুশে বইমেলায় বিক্রি হতে দেখলে। মোটিভেশান বই কোনো বই নয়। সোজা বাংলায় ‘আবর্জনা’।
আয়মান সাদিকের ‘লাইফ হ্যাকস’ বা সোলায়মান সুখনের বই পড়ে আপনি সফল হয়ে দাঁত কেলিয়ে হাসবেন এটা ভাবা ছেড়ে দেন। বিল গেটস বা ওয়ারেন বাফেটকেও আয়মান সাদিক গং বা সুখন গংকে পোছেও না। কারণ তাদের দরকার নেই। তাদের স্ট্রাগল, তাদের কাজÑ ঠিক তাদের প্যাটার্নে। আয়মান সাদিকের লাইফ হ্যাকস না শাব্বির আহসানের ‘ভাইকে আপুকে’ মার্কা আবর্জনা পড়ে তারা সফল হননি। বইমেলায় আমার ‘তালা ভাঙার পালা’ নিয়ে পাঠকের অনুভ‚তি আস্তে আস্তে জেনে আনন্দিত হচ্ছি, কেউ যখন বলে এই বইটার জন্য এসেছিÑ শুনলে আনন্দ হয়, গালি দিলেও আনন্দ হয়। সাদাত ভাইয়ের লেখার ধরন আমার প্যানপেনে লাগে এবং আমি পড়ি না, তবুও তার বইয়ের জন্য লাইন দেখলেও ভালো লাগে। অন্তত সাহিত্য সাহিত্য খেলাতো হচ্ছে। জাকির তালুকদার, শাহাদুজ্জামানের লেখার জন্য অপেক্ষা করতে ভালো লাগে। অপেক্ষা করতে ভালো লাগে সহুল আহমেদ মুন্না, আরিফ রহমান অথবা নিঝুম মজুমদারের লেখা একদম নন-ফিকশন বইয়ের জন্যও। একুশে বইমেলা মানুষের হতাশাকে পুঁজি করে ব্যবসা করার জায়গা নয়। বইমেলা মানুষের সৃজনশীলতাকে বাড়িয়ে দেওয়ার, মানুষকে নতুন করে ভাবাতে শেখার জন্য তৈরি। সেই মেলায় বিসিএস গাইড মার্কা বই বেস্ট সেলার হয়ে যাচ্ছে দেখলে হাসিমুখে কেঁদে দিতে ইচ্ছা করে। সব কিছু নষ্টদের অধিকারে যাক, বইমেলাকেও কী সেই খোঁয়াড়েই যেতে হবে? ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]