• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » এই প্রথম মানুষ হিসাবে মর্যাদা পেলাম, এটা আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া বললেন অবহেলিত নারী ঐক্যের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম


এই প্রথম মানুষ হিসাবে মর্যাদা পেলাম, এটা আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া বললেন অবহেলিত নারী ঐক্যের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম

আমাদের নতুন সময় : 14/02/2020

কামাল হোসেন : ২] গত ২ ফেব্রুয়ারি দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে প্রবীণ যৌনকর্মী হামিদা বেগমের (৬৫) মৃত্যু হলে গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আশিকুর রহমান (পিপিএম) তাকে মসজিদের ইমাম দ্বারা ধর্মীয় রীতি অনুসারে দাফনের ব্যবস্থা করেন।
৩] জানা গেছে, প্রায় শত বছরের পুরোনো যৌনপল্লীটি আশির দশকে গোয়ালন্দ ঘাট (সাবেক মহুকুমা) থেকে উচ্ছেদের জন্য পুড়িয়ে দিলে যৌনকর্মীরা দৌলতদিয়া এসে বসবাস শুরু করেন।
৪] এতদিন কোনো যৌনকর্মী এবং তাদের সন্তান মারা গেলে বালির বস্তা কোমরে বেঁধে নদীতে নিক্ষেপ অথবা পদ্মায় জেগে ওঠা বালুচরে মাটি চাপা দেয়া হতো। বিগত কয়েক বছর ধরে যৌনকর্মীদের নিজস্ব কবরস্থানে ধর্মীয় রীতির বাইরে যেনতেনভাবে কবর দেয়া হতো।
৫] দৌলতদিয়া রেল মসজিদের ইমাম মো. গোলাম মোস্তফা আমাদের নতুন সময়কে বলেন, প্রথমে ধর্মীয় রীতি অনুসারে যৌনকর্মীর দাফন করায় রাজি হইনি। পরে ওসির কথায় তার জানাজা করি।
৭] এ ব্যাপারে গোয়ালন্দঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আশিকুর রহমান বলেন, এটা আমার কাছে অমানবিক বলে মনে হওয়ায়, যৌনকর্মীর জানাজার ব্যবস্থা করি। সম্পাদনা : ভিক্টর রোজারিও




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com