• প্রচ্ছদ » » কে ছিলেন ‘সেন্ট ভ্যালেন্টাইন’


কে ছিলেন ‘সেন্ট ভ্যালেন্টাইন’

আমাদের নতুন সময় : 17/02/2020

মো. শামসুদ্দিন : অনেককাল আগের কথা। তখন রোমান রাজত্ব পৃথিবীর বুকজুড়ে। তৃতীয় শতাব্দীর মাঝামাঝি সময়। সম্রাট ক্লডিয়াস সিংহাসনে রাজ করছেন তখন। খুব জাঁদরেল রাজা। কেউ তাকে সহ্য করতে পারে না। বিরাট এক সৈন্যবাহিনী গড়ে তুলবেন বলে পণ করেছেন। কিন্তু রাজ্যের যুবককুল সেই দলে যোগদান করতে নারাজ। পরিবার, প্রিয়তমাকে ছেড়ে যুদ্ধক্ষেত্রে অকালে প্রাণ ত্যাগ করতে চায় না কেউই। কিন্তু রাজা নাছোড়। প্রজাদের ঔদ্ধত্যে তিনি অস্থির। ঠিক করলেন প্রেম, ভালোবাসা, পিছুটানকে রাজ্যে ঠাঁই দেবেন না আর। জারি হলো নিষেধাজ্ঞা। ক্লডিয়াসের রাজ্যে হবে না কোনো বিয়ে।
এই আইনে খেপে গেলো প্রজারা। ক্ষুব্ধ হলেন রাজপুরোহিত সেন্ট ভ্যালেন্টাইন। ছেলেমেয়েদের বিয়ে দিতেই ছিলো তার যতো উৎসাহ। রাজ আইনকে ফাঁকি দিয়ে তিনি লুকিয়ে বিয়ে দিতে লাগলেন প্রেমিক-প্রেমিকাদের। একদিন তা ধরা পড়ে গেলো রাজার চোখে। রাজপেয়াদারা ভ্যালেন্টাইনকে কারারুদ্ধ করলো। শাস্তি মৃত্যুদÐ। শোরগোলে মেতে গেলে রাজ্যে। সেন্ট ভ্যালেন্টাইন কারারুদ্ধ হওয়ার পর প্রেমাসক্ত যুবক-যুবতীদের অনেকেই প্রতিদিন তাকে কারাগারে দেখতে আসতো এবং ফুল উপহার দিতো। তারা বিভিন্ন উদ্দীপনামূলক কথা বলে সেন্ট ভ্যালেন্টাইনকে উদ্দীপ্ত রাখতো। বন্দি ভ্যালেন্টাইনকে তারা ছুড়ে দিতো ফুল। পেয়াদার চোখ রাঙানিকে বুঝিয়ে দিতো প্রেম হার মানতে শেখেনি। ভ্যালেন্টাইন একা নন। সেই দলে ছিলো এক মেয়েও। মুখ্য পেয়াদার একমাত্র মেয়ে। সে প্রতিদিন ভ্যালেন্টাইনের সঙ্গে গারদে বসে গল্প করতো। মনে সাহস যোগাতো ভ্যালেন্টাইনের। মারা যাওয়ার দিন ভ্যালেন্টাইন সে মেয়েটিকে একটি ছোট চিঠি লিখে যায়, ‘লাভ ফ্রম ইওর ভ্যালেন্টাইন’। ভ্যালেন্টাইনকে মৃত্যুদÐ দেওয়া হয় ২৬৯ সালের ১৪ ফেব্রæয়ারি। সেই থেকে শুরু। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]