• প্রচ্ছদ » » ধর্মের মতো ভাষার ক্ষেত্রেও কট্টর হওয়া ভালো নয়


ধর্মের মতো ভাষার ক্ষেত্রেও কট্টর হওয়া ভালো নয়

আমাদের নতুন সময় : 22/02/2020

শামীম আহমেদ জিতু

ফেসবুকে ইংরেজি হরফে বাংলা লেখায় ক্রমাগত তিরস্কার করেছি এমন কতোজন যে গত ১০ বছরে বন্ধু তালিকা থেকে বিদায় নিয়েছেন হিসাব নেই। বহুজন তালিকায় থেকেও যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করেছেন। কিন্তু তাদেরই অনেককে এখন অভ্র শিখে ঝরঝরে বাংলায় স্ট্যাটাস দিতে দেখলে বুকটা ভরে যায়। কিন্তু এখনো অনেককে দেখি একটা পুরো বাক্য শুদ্ধ ইংরেজিতে লিখতে পারেন না, অথচ ক্রমাগত ভুল ইংরেজিতে স্ট্যাটাস কিংবা কমেন্ট দিয়ে যাচ্ছেন। আমি বলতে চাই ভাই, ভুল ইংরেজি লেখার চাইতে বাংলা লেখার চেষ্টা করুন। নিশ্চিত থাকতে পারেন, আপনার ইংরেজির চাইতে বাংলা ভালো হবে। ইদানীং আমার বাংলা বানান আগের চাইতে বেশি ভুল হচ্ছে। ইংরেজি বেশি লেখার কারণে বাংলায় ভুল হচ্ছে বেশি, তাও চেষ্টা করি প্রতিনিয়ত নতুন করে শিখতে, ভুল শুধরে নিতে।
সঙ্গে সঙ্গে এটাও বলতে চাই, ধর্মের মতো ভাষার ক্ষেত্রেও কট্টর হওয়া ভালো নয়। এই ২০২০ সালে এসে বাংলা লেখার সময় ‘স্ট্যাটাস’, ‘কমেন্ট’, ‘ফোন’ ইত্যাদি ইংরেজি শব্দ চলে আসবে। এগুলো মেনে নিতে হবে। গল্প, কবিতায়Ñ ‘করছি’, ‘খাইছি’ ইত্যাদি শব্দও যৌক্তিকভাবে চলে আসতে পারেÑ মেনে নেয়া ভালো। কিছু বানান ভুল লিখতে লিখতে শুদ্ধটাও শিখে নেবে মানুষÑ ধৈর্য ধরতে হবে, চেষ্টা থাকতে হবে। ছোটকালে মাঝে মাঝে রোজা রাখার সময় মুরব্বিরা নামাজ না পড়লে বলতেন, নামাজ না পড়লে রোজা হবে না। বারবার এই কথা বলায় একসময় রোজা রাখাও ছেড়ে দিয়েছিলাম। তাই কট্টর হওয়া ভালো নয়। সবাই ভালো থাকুন। বাংলা ভাষা অমর হোক। গীবত নয়, ভালোবাসার চর্চা হোক পৃথিবীময়। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]