• প্রচ্ছদ » » মুজিববর্ষে বইমেলা থেকে সরকার ১০০ কোটি টাকার বই কিনবে?


মুজিববর্ষে বইমেলা থেকে সরকার ১০০ কোটি টাকার বই কিনবে?

আমাদের নতুন সময় : 26/02/2020

নির্মলেন্দু গুণ

মুজিববর্ষে বইমেলা থেকে সরকার ১০০ কোটি টাকার বই কিনবে, কী কারণে এমনটি হলো বুঝে উঠতে পারছি না। সম্ভবত মুজিববর্ষের প্রভাব পড়েছে। এর আগে কোনো বইমেলায় আমার তিনটি বা বড়জোর চারটি বই প্রকাশিত হয়েছে। আর এবারের বইমেলাটি শেষ হতে আরও সপ্তাহখানিক বাকিÑ এরই মধ্যে প্রাকশিত হয়ে গেছে আমার অষ্টব্যঞ্জনÑ মানে বিভিন্ন রকমের বিভিন্ন সকমের আাটটা বই? হ্যাঁ কৃষ্ণ করুণাসিন্ধু, দিনবন্ধু জগতপতে। এই গ্রন্থজগতের যিনি মহান অধিপতি, তার ইচ্ছারই জয় হয়েছে এবং অন্তরাল থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রচ্ছন্ন প্রশ্রয় থেকে থাকলেও থাকতেও পারে বলে মনে করি। আমি জানি, পাঠকদের পক্ষে আমার বই কিনে ফতুর হওয়ার পরামর্শ আমি দিতে পারি না। বাকি থাকলো সরকার। যে সরকারের পক্ষ নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ করা সম্ভবÑ সেই অঘটনঘটন পটিয়সী সরকারের পক্ষে মুজিববর্ষে প্রকাশিত সব বই চোখ বন্ধ করে কিনে ফেলা খুবই সম্ভব। সেই তালিকায় আমার আট-দশখানা বই তো কোনো ব্যাপার নয়।
সরকার ধান, চাল, পাট কিনে চাষিদের যদি ভর্তুকি দিতে পারে, তাহলে বাংলাদেশের শব্দ চাষিদের ভর্তুকি দেবেন না কেন? সরকারের ক্রয়পর সুবিধার্থে আমি এই বইমেলায় প্রকাশিত আমার দশটি বইয়ের তালিকা প্রদান করলাম। ১. মুজিবসমগ্র পৃ. ৪০০, দাম ৬০০ টাকা। ২. নির্বাচিতা (নবম সংস্করণ) ৮০০ টাকা। ৩. ‘শিরোনামহীন কবিতা’, দাম ৪০০ টাকা। ৪. চুমুর নূপুর কাব্যগ্রন্থ, দাম ১৯০ টাকা। ৫. নির্মলেন্দু গুণ অনূবাদিত কবিতাসমূহ, দাম ২৫০ টাকা। ৬. ঝবষবপঃবফ চড়বসং ড়ভ ঘরৎসধষবহফঁ এড়ড়হ, ৩০০ ঃশ. ৭. কিশোর গল্পসমগ্র, মূল্য ৩৫০ টাকা। ৮. নির্বাচিত ছড়া, ১৩০ টাকা। আাপাতত আমার এই আটখানা বইয়ের নাম-পরিচয় মূল্যসহ প্রকাশ করা হলো।
পাঠক, সরকারের উপর নির্ভর করে বসে থাববেন নাÑ নিজেরাও সাধ্যমতো আপনার পছন্দের বইগুলো কিনবেন। আমার আর কিছু বলার নেই। আমার কাজ হলো লেখা, প্রকাশকের কাজ হলো বই প্রকাশ করা, বিক্রেতাদের কাজ হলো বই বিক্রি করাÑ আর পাঠক এবং পাঠাগারের ( সরকারের অর্থানুকুল্যে) কাজ হলো বই কেনা। আমার কাজ আমি করেছিÑ আপনাদের কাজ আপনারা করুন। ২৫/০২/২০ । ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]