• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » ধর্মীয় ভাব-গাম্ভীর্যে খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের ভস্ম-বুধবার পালিত


ধর্মীয় ভাব-গাম্ভীর্যে খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের ভস্ম-বুধবার পালিত

আমাদের নতুন সময় : 27/02/2020

 

ভিক্টর রোজারিও : [২] পাপের প্রায়শ্চিত্ত হিসেবে গির্জায় গিয়ে কপালে ছাই মেখে দিনটিকে বিশেষ মর্যাদায় পালন করেছেন বাংলাদেশের খ্রিস্টানরা। মানুষ যে মাটি থেকে এসেছে এবং আবার মাটিতেই ফিরে যাবে সে কথা স্মরণ করে প্রতি বছর চল্লিশ দিনের উপবাসকাল বা প্রায়শ্চিত্তকালের শুরুতে এ দিনটি পালন করেন তারা।
[৩] দিবসটি উপলক্ষ্যে এক উপদেশ বাণীতে রাজশাহী কাথলিক ধর্মপ্রদেশের বিশপ জের্ভাস রোজারিও বলেছেন, তপস্যাকালে ত্যাগস্বীকার করে আমরা সংযম প্রকাশ করবো।

[৪] তিনি আরও বলেছেন, প্রায়শ্চিত্তকাল হলো ত্যাগস্বীকারের সময়। এই সময় আমরা স্মরণ করি, প্রভু যিশুখ্রিস্ট চল্লিশদিন মরুভূমিতে ছিলেন। তিনি সেখানে উপবাস করেছেন। প্রলোভন জয় করেছেন। আমরা যেন আমাদের জীবনের প্রলোভন ও পাপকে জয় করতে পারি।
[৫] পূর্ব রাতে চার ভাগের একভাগ খাবার খেয়ে পরের দিন দুপুর ১২টা পর্যন্ত উপোস থাকেন উপবাসকারীরা।
[৬] এ সময় প্রতি শুক্রবার যিশুর যাতনাময় ক্রুশীয় মৃত্যুর কথা স্মরণ করে বিশেষ প্রার্থনায় অংশ নেন খ্রিস্টানরা ।
[৭] চল্লিশ দিন প্রায়শ্চিত্তের পর যিশুখ্রিস্টের ক্রুশে মৃত্যুবরণের দিবস হিসেবে গুড ফ্রাইডে ও রবিবার পুনরুত্থান দিবস ইস্টার সানডে পালন করা হয়। সম্পাদনা : সমর চক্রবর্তী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]