[১]রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর

আমাদের নতুন সময় : 27/02/2020

আরও চাপ বাড়াতে জার্মানিসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার
কূটনৈতিক প্রতিবেদক : [২] প্রধানমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমারের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরের পরেও দেশটি রোহিঙ্গাদের ফেরত নিচ্ছে না এবং তারা চুক্তিও মানছে না। রোহিঙ্গারা আমাদের জন্য এক বিরাট বোঝা এবং তারা সামাজিক সমস্যার সৃষ্টি করছে।
[৩] শেখ হাসিনা বলেন, সরকার মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের সকল প্রকারের সাহায্য প্রদান করছে। ঐ এলাকার নিরাপত্তার জন্য ইতোমধ্যেই রোহিঙ্গাদের পরিচয়পত্র দেয়া হয়েছে। রোহিঙ্গাদের এবং বাংলাদেশের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করেই রোহিঙ্গা শিবিরের চারপাশে বেড়া নির্মাণ করা হচ্ছে।
[৪] সরকার সারাদেশে ১০০ বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলছে জানিয়ে তিনি বলেন, জার্মানি চাইলে বিনিয়োগের জন্য জমি বরাদ্দ দেয়া যেতে পারে। এ সময় তিনি জার্মান বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগেরও আহবান জানান।
[৫] মঙ্গলবার সন্ধায় গণভবনে জার্মানির অর্থনৈতিক সহযোগিতা এবং উন্নয়ন বিষয়ক মন্ত্রী ড. গার্ড মুলার সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে গেলে প্রধানমন্ত্রী এ আহবান জানান। সম্পাদনা : সমর চক্রবর্তী, ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]