• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » করোনাভাইরাসের ভয়ে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দারা, ৫টি গেট বন্ধ


করোনাভাইরাসের ভয়ে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া যৌনপল্লীর বাসিন্দারা, ৫টি গেট বন্ধ

আমাদের নতুন সময় : 21/03/2020

সিরাজুল ইসলাম : [২] এ ভাইরাস প্রতিরোধে ১৫ দিনের জন্য এ যৌনপল্লী শুক্রবার লকডাউন করা হয়েছে।
[৩] গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ঘাটের এ পল্লীতে এক হাজার ৬০০ যৌনকর্মী রয়েছে। তাদের সন্তান, মা এবং ব্যবসায়ীসহ তিন হাজারের মতো মানুষ বসবাস করে প্রায় এক বর্গকিলোমিটার জায়গায়। অন্যান্য মানুষের সঙ্গে বিপুল সংখ্যক পরিবহন শ্রমিক এখানে যাতায়াত করে থাকেন।
[৪] যৌনকর্মী রেখা (ছদ্ম নাম) বলেন, গড়ে প্রতিজন যৌনকর্মীর কাছে ৫ থেকে ৭ জন খদ্দের আসে। এ হিসেবে এখানে দিনে ৭ থেকে ১০ হাজার মানুষ আসে। তাদের কাউকে পরীক্ষা করা হয় না।
[৫] যৌনকর্মী শিরিন (ছদ্ম নাম) বলেন, এখানে গা ঘেঁষাঘেঁষি করে চলাচল করতে হয়। একজন সংক্রমিত হলে কয়েক দিনের মধ্যে অন্যরা সংক্রমিত হবে। এখানে আসা লোকজন অন্য জায়গায় এ ভাইরাস ছড়ানোর কারণ হতে পারে।
[৬] যৌনকর্মীদের সংগঠন অবহেলিত নারী ঐক্যের সভানেত্রী ঝুমুর বেগম বলেন, করোনাভাইরাস আতঙ্কে রয়েছেন তারা। ভাইরাস প্রতিরোধে তার সংগঠন ও গোয়ালন্দ থানা পুলিশের উদ্যোগে মূল গেটে ছয়টি বেসিন বসানো হয়েছে। রয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার।
[৭] গোয়ালন্দ থানার ওসি আশিকুর রহমান বলেন, দৌলতদিয়া যৌনপল্লী লকডাউন করা হয়েছে। যৌনকর্মীরা ২০ কেজি করে চাল পাবেন। বাড়ির মালিকরা ভাড়া নিতে পারবেন না।
[৮] পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আসিফ মাহমুদ বলেন, দৌলতদিয়া যৌনপল্লী অবশ্যই চরম ঝুঁকিতে ছিলো। উপজেলা করোনাভাইরাস প্রতিরোধ কমিটিতে বিষয়টি আলোচনা হয়েছে।
[৯] গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবায়েত হায়াত শিপলু জানান, পরিস্থিতি বিবেচনায় দৌলতদিয়া যৌনপল্লী বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সম্পাদনা : ভিক্টর রোজারিও




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]