বিভিন্ন দেশে করোনায় মৃত ব্যক্তির শেষকৃত্য অনুষ্ঠান

আমাদের নতুন সময় : 23/03/2020


সিরাজুল ইসলাম: [২] ইরানে ইসলামি রীতি অনুসারে মরদেহ গোসল বা সাদা কাপড়ে মোড়ানো হয় না। হাসপাতাল থেকে মরদেহ প্লাস্টিকের প্যাকেটে ঢুকিয়ে সিল করে দেওয়া হয়। এই প্যাকেট বাক্সে ঢুকিয়ে দেয়া হয়। ফুল বা সুগন্ধি ছেটানো হয় না। শুধুমাত্র পাউডার ছিটানো হয়। আত্মীয় স্বজনকে কাছে যেতে দেওয়া হয় না। কফিন বেশ দূরে রেখে স্পিকারের মাধ্যমে জানাজা করা হয়। এরপর বাক্স গণকবরে মাটির অনেক নীচে পুঁতে রাখা হয়। সূত্র: শিকাগো ট্্িরবিউন
[৩] ইতালিতে সুরক্ষা পোশাক পরে মরদেহ দাফনকারী কোম্পানি কিংবা স্বেচ্ছাসেবীরা মরদেহ নিয়ে যায়। কঠোর সতর্কতার মধ্যে ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াই কবর দেওয়া হয়। স্ব^জনদের কাছে যেতে দেওয়া হয় না। ভিডিও কনফারেন্সে তারা প্রার্থনার সুযোগ পান। সূত্র: রয়টার্স
[৪] চীনে মরদেহ স্থানান্তর নিষিদ্ধ। আত্মীয় স্বজনকে কাছে যেতে দেওয়া হয় না। নিদিষ্ট স্থানে সেগুলো পুড়িয়ে ফেলা হয়। সূত্র: সিসিএন ডটকম
[৫] ভারতে বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার নিয়মানুসারে কঠোর সাবধানতায় মরদেহ প্লাস্টিকের ব্যাগে প্যাকেট করা হয়। এরপর নিদিষ্ট স্থানে দাহ করা হয়। মুসলিম হলে মাটির অন্তত ৮ ফুট গভীরে কবর দেওয়া হয়। স্বজনদের কাছে যেতে দেওয়া হয় না। সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে
[৬] শেষকৃত্যের আনুষ্ঠানিকতা ছাড়াই দক্ষিণ ও উত্তর কোরিয়ায় মরদেহ পুড়িয়ে ফেলা হয়। সরকারের নির্দিষ্ট লোকজন ছাড়া কারো সেখানে থাকার অনুমতি নেই। সূত্র: রেডিও ফ্রি এশিয়া ও ডেইলি টাইমস। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]