• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]ঢাকার দুই সিটিতে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে কার্যক্রম নেই, রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, [২]ডা. আবদুল্লাহ বললেন, ডেঙ্গু নিধনে যে কার্যক্রম থাকা উচিৎ তা নেই


[১]ঢাকার দুই সিটিতে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে কার্যক্রম নেই, রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, [২]ডা. আবদুল্লাহ বললেন, ডেঙ্গু নিধনে যে কার্যক্রম থাকা উচিৎ তা নেই

আমাদের নতুন সময় : 31/03/2020

সুজিৎ নন্দী : [২] করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রনে শুধুমাত্র ব্লিচিং পাউডার মেশানো পানি ছেটানো ছাড়া ডিএনসিসি ও ডিএসসিসির কোন কার্যক্রম নেই। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে রাখতে বছরজুড়ে কাজ করার ঘোষণা থাকলেও ভিআইপি এলাকা ছাড়া জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত কার্যক্রম প্রায় শূণ্যের কোটায়।
[৩] সূত্র জানায়, এ বছরের জানুয়ারি থেকে ৩০ মার্চ পর্যন্ত ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২৭১ জন। গত বছর ৩০ মার্চ পর্যন্ত ছিলো ৭৩ জন। গত বছরের তুলনায় এবার তা প্রায় তিনগুণ বেশি।
[৪] বিশিষ্ট চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এবিএম. আবদুল্লাহ বলেন, ডেঙ্গু নিধনে দুই সিটির যে কার্যক্রম থাকা উচিৎ সেটা নেই। দুই সিটির স্বাস্থ্য বিভাগের উচিৎ ডেঙ্গু নিধনে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা।
[৫] ডিএনসিসি সূত্রে জানা গেছে, ডিএনসিসির ১, ১২, ১৬, ২০ ও ৩১ নম্বর ওয়ার্ড এবং ডিএসসিসি’র ৫, ৬, ১১, ১৭, ৩৭ ও ৪২ ওয়ার্ডকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিন্থিত করেছে।
[৬] ডিএনসিসির নবনির্বাচিত মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ডেঙ্গু এবং করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে একই রকম গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। ডেঙ্গুর ব্যাপারে চিরুনি অভিযানের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।
[৭] ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন বলেন, ঢাকা উত্তরে মশার উপদ্রব খুবই কম। তবে আমাদের কার্যক্রম চলছে। সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ, ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]