• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করে পরীক্ষা নিতে হবে, [২]জ্ঞানী-গুণীদের অনেকেই স্বশিক্ষিত, স্বশিক্ষার সুযোগ এসেছে, [৩]গেম বা টিভিতে বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান নয়, শিক্ষার্থীদের মন দেয়া উচিত পড়ালেখায়, মনে করেন সৈয়দ আনোয়ার হোসেন


[১]সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করে পরীক্ষা নিতে হবে, [২]জ্ঞানী-গুণীদের অনেকেই স্বশিক্ষিত, স্বশিক্ষার সুযোগ এসেছে, [৩]গেম বা টিভিতে বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান নয়, শিক্ষার্থীদের মন দেয়া উচিত পড়ালেখায়, মনে করেন সৈয়দ আনোয়ার হোসেন

আমাদের নতুন সময় : 04/04/2020

আশিক রহমান : [৪] এই শিক্ষাবিদ আরও বলেন, করোনা সংকটে যথেষ্ট ক্ষতি হবে শিক্ষাকার্যক্রমে। কারণ আমরা জানি না কখনো করোনা সংকট থেকে মুক্ত হবো। কখনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলবে। একটা অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে আমরা তাকিয়ে আছি।
[৫] সরকার অনলাইনে যে শিক্ষাকার্যক্রম পরিচালনা করছে, তা চালু থাকা উচিত। এ কার্যক্রমের পরিপূর্ণ সদ্ব্যবহার করা উচিত শিক্ষার্থীদের। কারণ এটা মন্দের ভালো। [৬] পড়ালেখার দুটো দিক হচ্ছে প্রাতিষ্ঠানিক ও স্বকীয়। প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থা বন্ধ থাকলেও স্বকীয় ব্যবস্থা রয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা আমাদের সহায়ক হতে পারে, কিন্তু স্বশিক্ষা অনেক বড়।
[৭] অভিভাবকদের সচেতন থাকতে হবে সন্তান-সন্ততির ব্যাপারে। এ সময়ে যেন তারা পড়ালেখায় মনোনিবেশ করে দায়িত্ব তাদের নিতে হবে। [৮] শিক্ষকেরা শিক্ষার্থীদের মুঠোফোনে দিকনির্দেশনা দিতে পারেন। পরামর্শ ও উৎসাহী করতে পারে ঘরে বসে শিক্ষার ব্যাপারে।
[৯] শিক্ষার্থীরাও শিক্ষকদের ফোন করে পরামর্শ নিতে পারে। [১০] সরকার, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক একসঙ্গে সক্রিয় থাকলে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাকার্যক্রম সচল, সক্রিয় রাখা সম্ভব।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]