• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]করোনা মহামারির সময়ে বাংলাদেশের গণমাধ্যমকর্মীরা চিকিৎসা, আইনশৃঙ্খলার অতি জরুরি সেবার মতোই ফ্রন্ট লাইনে কাজ করছেন


[১]করোনা মহামারির সময়ে বাংলাদেশের গণমাধ্যমকর্মীরা চিকিৎসা, আইনশৃঙ্খলার অতি জরুরি সেবার মতোই ফ্রন্ট লাইনে কাজ করছেন

আমাদের নতুন সময় : 05/04/2020

নাঈমুল ইসলাম খান : [২] গার্মেন্টসকর্মীরা কাজ করছেন, গ্রামের কৃষকরা কাজ করছেন, সবজি বিক্রেতারা কাজ করছেন, হোটেল রেস্টুরেন্টেও অনেকে কাজ করছেন, সীমিত পরিসরে কাজ করছে ব্যাংকগুলোও।
[৩] যুদ্ধে ভীত হয়ে যেমন কোনো কোনো সৈনিক রণাঙ্গণ থেকে পালিয়ে যান, আমাদের সমাজে তেমন মানুষও রয়েছেন। খোঁড়া অজুহাতে অনেক চিকিৎসক রোগী দেখছেন না। অনেক সাংবাদিক অনিয়মতান্ত্রিক ও অনৈতিকভাবে বিনা অনুমোদনে কাজ থেকে পালিয়ে রয়েছেন।
[৪] পলাতক চিকিৎসকরা ভাবছেন না তার ব্রত কী ছিলো, ভাবছেন না তারই অনেক সহকর্মী, অনেক চিকিৎসক জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনা রোগীদের সেবা দিচ্ছেন, বিপরীতে তিনি নিরাপদে থাকছেন, পিপিই সহজলভ্য হলেও, সাধারণ অসুখের রোগীদের চিকিৎসা দিতেও রাজি নন।
[৫] কর্মস্থল থেকে পলাতক সাংবাদিকরা মহান এই পেশাকে অপমান তো করেছেনই, নিজের সাংবাদিক সহযোদ্ধাদের ওপর অনৈতিকভাবে কাজের বোঝা বাড়িয়েছেন স্বার্থপরের মত নিজেদেরকে নিরাপদে দূরে রাখার কারণে। সবাই একসাথে থাকলে বাস্তব ও বিজ্ঞানসম্মত কৌশলে দায়িত্ব ও কাজ ভাগাভাগি করা অনেক সহজ হতো, অনেক মানবিক হতো, অনেক নিরাপদও হতো।
[৬] বিভিন্ন পেশায় যারা বিপদের আশঙ্কা সত্ত্বেও নির্দ্বিধায় নিজ নিজ দায়িত্ব পালন অব্যাহত রেখেছেন তাদেরকে জানাই মোবারকবাদ, যারা ফাঁকি দিচ্ছেন, পালিয়ে আছেন, তাদের জন্য জানাই করুণা।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]