• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক প্যাকেজে হত-দরিদ্রদের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো বরাদ্দ না থাকায় জাতি হতাশ, বললেন বামপন্থী নেতারা


[১]প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক প্যাকেজে হত-দরিদ্রদের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো বরাদ্দ না থাকায় জাতি হতাশ, বললেন বামপন্থী নেতারা

আমাদের নতুন সময় : 06/04/2020

সমীরণ রায় : [২] বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান বলেন, দেশের করোনাভাইরাসের সংক্রমণে শ্রমজীবী ও হতদরিদ্রদের জীবন-জীবিকা বিপর্যস্ত। অথচ প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত প্যাকেজে হতদরিদ্রদের জন্য সুনির্দিষ্ট বরাদ্দ মিলেনি।
[৩] সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, সারাদেশের শ্রমজীবী, বস্তিবাসী, হকার, রিকশা চালক, ফুটপাতের ছিন্নমূল, গ্রামের দিনমজুরসহ নিন্ম আয়ের মানুষের জীবনে দুর্বিসহ সংকট নেমে এসেছে।
[৪] বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার অর্থনৈতিক প্যাকেজে শ্রমজীবী-দিনমজুরদের জন্য স্বস্তির কোন খবর নেই। [৫] গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু বলেন, সরকারের সিদ্ধান্তহীনতা ও সমন্বয়হীনতার জন্য দেশের পোষাক শিল্পের শ্রমিকরা একদিকে হয়রানীর শিকার হচ্ছে ।
[৬] গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জুনায়েদ সাকী বলেন, মুদি দোকানদার, রিকশা গ্যারেজ, পান দোকানদার, ভ্যানগাড়ীতে সবজি বিক্রেতাসহ এমন কমপক্ষে ২০ লাখ মানুষকে গড়ে ৫০ হাজার টাকা সুদমুক্ত ঋণ ১ বছরের জন্য দিলে মাত্র ১০ হাজার কোটি টাকা প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রীর প্যাকেজে তার কোনো সুনির্দিষ্ট বরাদ্দ নেই। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]