• প্রচ্ছদ » আজকের পত্রিকা » [১]দেশি-বিদেশি ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা বেশ ভালো বাংলাদেশের : ড. আতিউর রহমান, [২]বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক পলিসির স্বীকৃতি দিয়েছে দ্য ইকোনোমিস্ট


[১]দেশি-বিদেশি ঋণ পরিশোধের সক্ষমতা বেশ ভালো বাংলাদেশের : ড. আতিউর রহমান, [২]বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ও অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক পলিসির স্বীকৃতি দিয়েছে দ্য ইকোনোমিস্ট

আমাদের নতুন সময় : 06/05/2020

আশিক রহমান : [৩] বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক এই অর্থনীতিবিদ আরও বলেন, ২০০৮-২০০৯ সালে বিশ^মন্দা দেখা দিয়েছিলো, তখন কিছু আউট অব বক্স পলিসি গ্রহণ করেছিলো বাংলাদেশ ব্যাংক, এর মধ্যে কৃষি উৎপাদন, রপ্তানি বাড়ানো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্ততা ও উৎপাদন বৃদ্ধি। [৪] বিগত একদশক ধরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি শুধু ভালো আছে তা নয়, ফরেন একচেঞ্জ রিলেটেড অর্থনীতিও অনেক স্থিতিশীল।
[৫] ইকোনোমিস্ট তাদের ইতিবাচক মূল্যায়নের আগে দেখেছে, বাংলাদেশ যে ঋণ নেয় দেশি-বিদেশি সংস্থা বা রাষ্ট্র থেকে, তা শোধ করার কতোটুকু সক্ষমতা আছে। [৬] এ বছর যে ঋণ আছে তা ফেরত দেওয়ার ক্ষমতার বিষয়টিও মূল্যায়নে স্থান পেয়েছে। [৭] বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ভালো থাকায় বিদেশি ঋণ শোধ করা বা দেশের ভেতরে তারল্য বাড়ানো অনেক সহজ হয়ে গেছে। ফলে ইকোনোমিস্ট মনে করছে, ভারত, চীন, পাকিস্তান কিংবা অন্য অনেক দেশের চেয়ে করোনা পরবর্তী সময়ে অর্থনৈতিকভাবে ভালো থাকবে বাংলাদেশ।
[৮] কোভিড-১৯ ভাইরাসের আক্রমণ বা মহামারি কারণে যে স্বাস্থ্য সংকটে পড়েছে বিশ^, এতে যে ক্ষতি হবে দেশে দেশে, গভীর অর্থনীতির কারণে বাংলাদেশ অন্য অনেকের চেয়ে ভালো থাকবে। তবে তার মানে এই নয়, বাংলাদেশের সামনে চ্যালেঞ্জ নেই। এখনো বেশকিছু চ্যালেঞ্জ রয়েছে। দৃঢ়তার সঙ্গেই তা মোকাবেলা করতে হবে আমাদের।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]