• প্রচ্ছদ » » অনলাইন শিক্ষার প্রোগ্রাম ডিজাইনের ক্ষেত্রে যে তথ্য গুরুত্বসহকারের মনে রাখা প্রয়োজন


অনলাইন শিক্ষার প্রোগ্রাম ডিজাইনের ক্ষেত্রে যে তথ্য গুরুত্বসহকারের মনে রাখা প্রয়োজন

আমাদের নতুন সময় : 18/05/2020

গৌতম রায়

নানা ধরনের সীমাবদ্ধতাকে আমলে না নিয়ে আমরা যারা অনলাইন শিক্ষা পুরোপুরি চালু করা উচিত বলে মনে করি, তাদের জন্য নিচের তথ্যগুলো দেওয়া হলো। ইউনিসেফের সহায়তায় বাংলাদেশ সরকারের বাংলাদেশ ব্যুরো অব স্ট্যাটিসটিকস গঁষঃরঢ়ষব ওহফরপধঃড়ৎ ঈষঁংঃবৎ ঝঁৎাবু ২০১৯-এ যেসব তথ্য প্রদান করে, সেগুলোর আলোকে বাংলাদেশের মানুষের তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের একটি চিত্র পাওয়া যায়। সেই চিত্রের আলোকে এদেশের মানুষের তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের ধরনটি বোঝা গেলে উচ্চশিক্ষা স্তরে অনলাইন শিক্ষা হুট করে চালু করা সম্ভব কিনা সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজতর হবে।
টেলিভিশন ব্যবহার : বাংলাদেশে ৫০.৬ শতাংশ খানায় টেলিভিশন রয়েছে। শহরাঞ্চলে এই হার ৭৪.২ শতাংশ হলেও গ্রামাঞ্চলে ৪৩.৯ শতাংশ বাড়িতে টেলিভিশন রয়েছে। বিভাগীয় হিসাবে সবচেয়ে বেশি টেলিভিশন রয়েছে ঢাকা বিভাগে (৬৬.১) শতাংশ ও সবচেয়ে কম বরিশাল বিভাগে (৩০.৫) শতাংশ। বক্তব্য : স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য টেলিভিশনের মাধ্যমে শিক্ষা প্রদান যথেষ্ট বলে যারা মনে করছেন, তারা আশা করি এ বিষয়ে পুনরায় ভাববেন। মোবাইল ফোন : বাংলাদেশে মোবাইল ফোন রয়েছে ৯৫.৯ শতাংশ খানায়। সবচেয়ে কম যেখানে, রংপুর বিভাগে, সেখানেও ৯৩.২ শতাংশ খানায় অন্তত একটি মোবাইল ফোন রয়েছে।
বক্তব্য : মোবাইল ফোনকে কীভাবে কার্যকরভাবে ব্যবহার করা যায়, সেই বিষয়টি জোরালোভাবে ভাবা প্রয়োজন। এখানে অবশ্য স্মার্ট ফোন ও ফিচার ফোনের পার্থক্য করা নেই। মোবাইল ফোন ব্যবহার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হলে কতো শতাংশ বাড়িতে স্মার্ট ফোন রয়েছে সেই হিসাবটি জরুরি। রেডিও : রেডিও রয়েছে ০.৬ শতাংশ বাড়িতে। বক্তব্য : এটা তেমন গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে হচ্ছে না। এর একটি কারণ সম্ভবত সবার মোবাইল ফোনেই এখন রেডিও থাকে। কম্পিউটার : মাত্র ৫.৬ শতাংশ বাড়িতে কম্পিউটার রয়েছে। গ্রামাঞ্চলে এই হার ৩.১ শতাংশ। সবচেয়ে বেশি ঢাকা বিভাগে (৯) শতাংশ ও সবচেয়ে কম রংপুর বিভাগে (৩.১) শতাংশ। বক্তব্য : অনলাইন শিক্ষাকে কার্যকর করতে হলে মোবাইল ফোন যথেষ্ট নয়, কম্পিউটার বা ল্যাপটপের ব্যবহার খুব গুরুত্বপূর্ণ। এই ৫.৬ শতাংশ সুযোগ দিয়ে অনলাইন শিক্ষা পুরোপুরি বাস্তবায়ন সম্ভব? ইন্টারনেট সংযোগ : ৩৭.৬ শতাংশ খানায় ইন্টারনেট সংযোগ রয়েছে। শহরাঞ্চলে এই হার ৫৩.১ শতাংশ ও গ্রামাঞ্চলে ৩৩.২ শতাংশ। সবচেয়ে বেশি চট্টগ্রাম বিভাগে (৪৯.২) শতাংশ ও সবচেয়ে কম রংপুর বিভাগে (১৮.৩) শতাংশ। জনসংখ্যার অর্ধেক অংশ নারী। যেদিন জরিপ করা হয়েছে তার পূর্ববর্তী ৩ মাসে কম্পিউটার ব্যবহার করেছেন এমন নারীর হার ১.৯ শতাংশ, মোবাইল ফোন ব্যবহার করেছেন ৯৭.৮ শতাংশ এবং ইন্টারনেট ব্যবহার করেছেন ১২.৯ শতাংশ। বক্তব্য : অনলাইন শিক্ষার প্রোগ্রাম ডিজাইনের ক্ষেত্রে এই তথ্যটিও গুরুত্বসহকারের মনে রাখা প্রয়োজন। ডিসক্লেইমার : কেউ আবার আমাকে অনলাইন শিক্ষার বিরোধী মনে করবেন না যেন। নিজ আগ্রহের কারণেই আমার দ্বিতীয় মাস্টার্সের থিসিস বা গবেষণার কাজ ছিলো অনলাইন শিক্ষার উপর। আজকাল কোনো স্ট্যাটাস দিলে অনেকে মূল বক্তব্যকে আমলে না নিয়ে বক্তব্যের বাইরে গিয়েও চিন্তা করা শুরু করেন বলে ডিসক্লেইমারটা দিতে হলো। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]