• প্রচ্ছদ » » ভারত : সরকার না চাইলে দাঙ্গা হয় না


ভারত : সরকার না চাইলে দাঙ্গা হয় না

আমাদের নতুন সময় : 18/05/2020

অনির্বাণ বন্দ্যোপাধ্যায়

সরকার চাইলে দাঙ্গা রুখতে পারে। সরকার না চাইলে দাঙ্গা হয় না। দাঙ্গা এ প্রথম নয়। ব্রিটিশ আমলেও প্রচুর দাঙ্গা হয়েছে। ব্রিটিশরা চেয়েছিলো বলে দাঙ্গা হয়েছে। ছেচল্লিশে ব্রিটিশ ও সহযোগীরা চেয়েছিােল বলে দাঙ্গা হয়েছিলো। প্রশাসন চেয়েছিলো বলেই হয়েছিলো। চুরাশিতে কংগ্রেস চেয়েছিলো বলেই দাঙ্গা হয়েছিলো। ১৯৯২ অযোধ্যায় নরসীমা রাও ও কল্যাণ সিং দাঙ্গা চেয়েছিলো বলেই হয়েছিলো। ২০০২ সালে গুজরাটে সরকার ও প্রশাসন চেয়েছিলো বলেই দাঙ্গা হয়েছিলো। ২০২০ দিল্লিতে এতো হত্যালীলা হতো না, যদি সরকার ও প্রশাসন না চাইতো। আমাদের মতো দেশে দাঙ্গা দমনকারী আলাদা স্পেশাল পুলিশ তৈরি করা উচিত ছিলো, যারা দাঙ্গাকারী দেখলেই গুলি করে দেবে। শুধু দাঙ্গাকারীই নয়, উসকানিমূলক কথা বলা, বিদ্বেষমূলক ভুয়া খবর করা ইত্যাদি সব ক্ষেত্রেই সেই ফোর্স কার্যকরী ভ‚মিকা নেবে।
প্রচলিত পুলিশ দিয়ে কোনোভাবেই দাঙ্গা দমন সম্ভব নয়। কারণ পুলিশের ভেতরেই কিছু দাঙ্গায় মদদকারী থাকে। পুলিশের মধ্যেও হিন্দুবিদ্বেষী, মুসলিমবিদ্বেষী থাকে। সেটাই স্বাভাবিক। কারণ তারাও কোনো না কোনো রাজনৈতিক দলের সমর্থক। পুলিশ নিরপেক্ষ হবে এটা আশা করাটাই অন্যায়। ঘটনাস্থলে পুলিশ অনেক সময় নিষ্ক্রিয় থেকে পরোক্ষে মদদ যোগায়। গত কলকাতা বইমেলায় পুলিশের ভ‚মিকা আমি প্রত্যক্ষ করেছি। খুবই নিন্দনীয় ভ‚মিকা। দেশের সব রাজ্যে দাঙ্গা দমনকারী স্পেশাল ফোর্স তৈরি করুক, সত্যি যদি দাঙ্গা না চান, সত্যিই যদি না চান ধর্মীয় বিভেদে মানুষের মৃত্যু হোক। তবেই মানুষ শান্তিতে থাকবে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]