• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]ইতিহাসের শক্তিশালীতম ঘূণিঝড়ের সামনে ভারত ও বাংলাদেশের ২০ কোটি মানুষ [২]করোনা পরিস্থিতিতে তৈরি হতে পারে ইতিহাসের বৃহত্তম মানবিক সঙ্কট


[১]ইতিহাসের শক্তিশালীতম ঘূণিঝড়ের সামনে ভারত ও বাংলাদেশের ২০ কোটি মানুষ [২]করোনা পরিস্থিতিতে তৈরি হতে পারে ইতিহাসের বৃহত্তম মানবিক সঙ্কট

আমাদের নতুন সময় : 20/05/2020

আসিফুজ্জামান পৃথিল : [৩] আজ মাটিতে আছড়ে পড়বে সুপার সাইক্লোন আম্ফান। উত্তর ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে এতো তীব্র ঝড় কখনই তৈরি হয়নি। এমন এক সময় এই ঝড় আসছে, যখন এই অঞ্চল তীব্র করোনাসঙ্কটে রয়েছে। সিএনএন, আল জাজিরা, দ্য হিন্দু
[৪] সোমবার রাতে এই ঝড়ের কেন্দ্রের চারপাশে বাতামের গতিবেগ ছিলো প্রতি ঘন্টায় ২৭০ কিলোমিটার। বঙ্গোপসাগরে কোনও ঝড় কখনই এই তীব্রতা অর্জন করতে পারেনি বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জয়েন্ট টাইফুন ওয়ার্নিং স্টোর।
[৫] এরপর সামান্য শক্তি হারিয়েছে ঝড়টি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর শক্তি আরও কিছুটা বাড়তে পারে।
[৬] ১৯৯৯ সালে বঙ্গোপসাগরে সর্বশেষ সুপার সাইক্লোন তৈরি হয়েছিলো। সেবার ১৫ হাজার গ্রাম বিধস্ত হয়। মারা যান প্রায় ১০ হাজার মানুষ। এবার সরাসরি আঘাত করতে যাচ্ছে বিশ্বের অন্যতম ঘণবসতিপূর্ন এলাকা কোলকাতা ও বাংলাদেশের সাতক্ষীরার মধ্যবর্তী এলাকায়। তবে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কিছুটা উত্তর পূর্বে সরে যেতে পারে আম্ফান। তাহলে এটি আঘাত হানবে বরিশাল-পটুয়াখালী উপকূলে। এর সম্ভাব্য আঘাতের স্থান আসলে পশ্চিমবঙ্গের দিঘা থেকে শুরু করে বাংলাদেশের হাতিয়া।
[৭] মার্কিন বিশেষজ্ঞদের মতে, আশ্রয় কেন্দ্র ও উদ্ধার তৎপরতায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা অসম্ভব একটি বিষয়। এই অবস্থায় এই ঝড় হতে পারে মরার উপর খাড়ার ঘা। সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]