• প্রচ্ছদ » » অবাধ্যতার কারণে বহু জাতি বিলীন হয়ে গেছে, তারপরও আমরা অবাধ্য!


অবাধ্যতার কারণে বহু জাতি বিলীন হয়ে গেছে, তারপরও আমরা অবাধ্য!

আমাদের নতুন সময় : 21/05/2020

আহমেদ মাজহারুল হক আশরাফ

সবাই সব করবে, লকডাউন ভেঙে, চুপিচুপি। যে যেভাবে পারছে করে গেছে। আরে ভাই, এটা মহামারি। পৃথিবীতে আমরা কখনো এমন মহামারি দেখি নাই। শুধুই বইয়ে পড়েছি, তাই মহামারি কি জিনিস বুঝি না। শহরের পর শহর ধ্বংস হয়ে গিয়েছে…। তাই পাত্তা দিই না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রথম থেকেই নিদের্শনা দিয়ে ছিলেন, সাবধান হন। বাড়ির আনাছে-কানাছে চাষ করেন, ধনীরা এগিয়ে আসেন, বড় বড় প্রজেক্ট দেশে হচ্ছে, জিডিপি কমে যাচ্ছে, কে শোনে কার কথা। অবাধ্যতার কারণে শয়তান জন্ম নিয়েছিলো। অবাধ্যতার কারণে বহু জাতি বিলীন হয়ে গেছেÑ সব আমাদের জানা। তারপরও অবাধ্যতা করে গিয়েছি…। ফলাফল আজ ১৬ উপর করোনাতে আক্রান্ত। ২ হাজার পুলিশ আক্রান্ত। যা সামাল দেওয়া কঠিন করে ফেলেছি আমরা নিজেরাই। জানি না সামনে কি হবে। হয়তো জুনে ভালো হবে, নয়তো আরো খারাপ হবে…। এ দায়ভার পুরোপুরি আমাদের…। লুটপাট তো করছেই, সাথে পেটের চাপ। আরে ভাই ক্ষেমা দেন। কী করবেন করোনার ভেতর থেকে। দোকান খোলার সাথে সাথে পাগলের মতো মানুষের ঢল..। কী আজব। ৬৪ টি জেলায় ছড়িয়ে পরেছে করোনা। পৃথিবীর অন্য দেশগুলো তে পুরো দেশ ছড়াতেই দেয়নি তারা। আজব জাতি আমরা। কোনো হুঁশ-জ্ঞান নেই। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখন পর্যন্ত কোনো সমাধানের পথই বলতে পারে না। খুব ভালো করছে, ট্রাম্প অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে। যে তথ্য তারা দিয়েছে প্রায় ৫০ লাখ মানুষ করোনাতে শিকার আমার ধারণা তা ১ কোটি পার হয়েছে…। (অংশবিশেষ)।ফেসবুক থেকে

কারণ সবাই তথ্য লুকায়…। একটু সাবধনতা রক্ষা করতে পারে এই মহামারি, তা না হলে কী হবে আল্লাহ ভালো জানেন। আবারো বলি, এটা মহামারি, ফাইজলামী বা আবেগের কিছু না। বাকিটা আল্লাহ ভরসা। সকলে এক হয়ে, নিয়ম মানলেই তবেই জয়ী হওয়া সম্ভব। আর তা নাহলে’ এই পৃথিবীতে তারাই বেঁচে থাকবে যারা সবল। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]