• প্রচ্ছদ » » পোড়া ভিটায় রণেশ ঠাকুর তুমি কী কুড়াবে ভাই?


পোড়া ভিটায় রণেশ ঠাকুর তুমি কী কুড়াবে ভাই?

আমাদের নতুন সময় : 21/05/2020

অজয় দাশগুপ্ত

এ লেখাটা না লিখতে পারলেই ভালো লাগতো। কিন্তু এমন কঠিন করোনা কালেও কেউ এমন করতে পারে ভাবতে পারিনি। দেশজুড়ে লকডাউন। কতো নিষেধাজ্ঞা। কতো ধরনের ভয়-ভীতি। কিছুই তাদের রুখতে পারেনি। এমন না যে এই ঘটনা নতুন কিছু। বরং পুরনো বিষয়ের নতুন আগুন বুঝিয়ে দিলো একদা হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান হলেও এখন বাউলেরা টার্গেট।
খবরে লেখা হচ্ছে, দুর্বৃত্ত বা দুষ্কৃতকারীরা করেছে। এটাও ভুল। নষ্টামি স্বীকার না করে সত্য ধামাচাপা দেয়ার অপকৌশল। সাহস থাকলে সত্য লিখুন, সত্যটা বলুন। সবাই জানি মৌলবাদী নামে পরিচিত সা¤প্রদায়িকেরা এসব করে। তাদের টার্গেট এখন বাউলেরা। যারা কোনো অপরাধ দূরে থাক, সহজে পাপও করতে ভয় পায়। তারা গান করে, গান গায়, নাচে, সংস্কৃতির বিপুল আনন্দে সুফি ও ঈশ্বরের উপাসক।
লালন আমার মুরশিদতুল্য। আর বাউল শাহ আবদুল করিম গুরুতুল্য। আবদুল করিমের খাস শিষ্যের ছেলে রণেশ ঠাকুর। পাগলা কিসিমের মানুষ। ভুলে যায় শরীয়ত বয়াতীর কথা। ভুলে যায় ওঁৎ পেতে থাকা দানবের উৎপাত। মনের আনন্দে গানের আসর বসায়। তাও করোনার সময় বন্ধ। কিন্তু পুরনো অন্ধ আক্রোশ ছেড়ে কথা বলেনি। গানের বই খাতা সরঞ্জাম বাড়িঘর সব পুড়িয়ে ছাই করে দেয়া হয়েছে। জানিয়ে দিয়েছে, রণেশ ঠাকুর এই সমাজে গান গাওয়া বিশেষত বাউলের গান না জায়েজ।
পোড়া ভিটায় রণেশ ঠাকুর তুমি কি কুড়াবে ভাই? সাহায্য সহায়তায় তোমার ভাঙা ঘরে দালান উঠলেও কি এই আগুনে পোড়া শাহ আবদুল করিম ফেরত আসবেন বই খাতায়? তারচেয়ে যেন এই জাতির নিয়তি। মুক্তিযুদ্ধের গর্ব, স্বাধীনতার অহংকার সব কি ছাই চাপা পড়ে যাবে ক্রমশ? হায় রণেশ ঠাকুর। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]