• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নরের চাকুরির মেয়াদ বাড়ছে [২]ফজলে কবিরের দায়িত্বকালও বাড়বে নিশ্চিত [৩]সংসদে সংশ্লিষ্ট আইন সংশোধন হবে আসন্ন বাজেট অধিবেশনে


[১]বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নরের চাকুরির মেয়াদ বাড়ছে [২]ফজলে কবিরের দায়িত্বকালও বাড়বে নিশ্চিত [৩]সংসদে সংশ্লিষ্ট আইন সংশোধন হবে আসন্ন বাজেট অধিবেশনে

আমাদের নতুন সময় : 24/05/2020

সালেহ্ বিপ্লব, সোহেল রহমান, সাইদ রিপন : [৪] বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারী এবং অর্থনৈতিক তীব্র মন্দা মোকাবেলা করতে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত অধিকাংশ পদক্ষেপ বাস্তবায়নে বাংলাদেশ ব্যাংকের গুরুত্ব অপরিসীম।
[৫] বর্তমান গভর্নর ফজলে কবির একসময়ে ছিলেন সফল অর্থসচিব। তারপর বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের দায়িত্বপালন করেছেন দক্ষতার সাথে, তিনি সরকারের গভীর আস্থাভাজন বলেও অনেকে জানেন। এছাড়া বিগত ৪ বছরের অধিক সময়ে ব্যাংকের নেতৃত্বে থাকার অভিজ্ঞতা ও ধারাবাহিকতা রক্ষা করতে সরকার আগ্রহী বলে জানা গেছে।
[৬] সরকারের শীর্ষস্থানীয় বেশ কয়েকটি সূত্র ফজলে কবিরের মেয়াদ বৃদ্ধির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। [৭] বাংলাদেশ ব্যাংক আইন ১৯৭২ এর ১০(৫) ধারা অনুযায়ী, গভর্নর ৬৫ বছরের বেশি বয়সী হতে পারেন না। তাই সরকার বিশেষ যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতার ক্ষেত্রে এই বয়সসীমা বাড়ানোর প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করলে বাংলাদেশে হাইকোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টের বিচারকদের মেয়াদ এখন সর্বোচ্চ ৬৭ বছর, সেই উদাহরণটি গ্রহণ করেছে বলে সংশ্লিষ্ট মহলের ধারণা। [৮] অর্থ মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ¦তন কর্মকর্তা বলেন, অনেক সময় নির্ধারিত বয়সসীমার কারণে এ পদে অধিকতর অভিজ্ঞ ও যোগ্যতর ব্যক্তিকে নিয়োগ দেয়া যায় না। তিনি আরো বলেন, শুধু ব্যাংক খাত থেকে নয়, এর বাইরেও একজন যোগ্য অর্থনীতিবিদও এই পদে আসতে পারেন। এছাড়া অন্য অনেক দেশে গভর্নর পদের জন্য কোনো বয়সসীমা নেই। তাই সরকার বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর পদে বয়সসীমা তুলে দেয়ার কথাও ভাবছে। এই কর্মকর্তা আরো বলেন, কোনো ব্যক্তির চাকুরির মেয়াদ বাড়ানোর জন্যে এই আইন সংশোধন হচ্ছে না। হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংকে শক্তিশালী নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠার আগ্রহ থেকে।
[৯] তবে বয়সসীমা দুবছর বাড়ানো হবে নাকি সীমা সম্পূর্ণ তুলে দেয়া হবে, এই দুয়ের মধ্যে বয়সসীমা অন্তত দুবছর বাড়ানো হবে, সেটা নিশ্চিত। [১০] সরকারের ইচ্ছা, আইনের সংশোধনীটি আসন্ন বাজেট অধিবেশনে তুলবে এবং যেহেতু বর্তমান গভর্নরের চাকুরির মেয়াদ বহাল আছে এ বছরের ৩ জুলাই পর্যন্ত এবং যেহেতু তার আগে সংসদের একটি অধিবেশন থাকবে, তাই রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশের মাধ্যমে এই আইন সংশোধনের প্রয়োজন নেই। [১১] জনাব ফজলে কবির ২০১৬ সালের ২০ মার্চ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে তার ৪ বছরের দায়িত্বপালন শুরু করেন। সেই হিসেবে ২০২০ সালের ২০ মার্চ তার মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু সে মেয়াদ শেষ হওয়ার ১ মাসেরও বেশি আগে ৬৫ বছর পূর্ণ হওয়া পর্যন্ত তার মেয়াদ বৃদ্ধি করা হয়। ফলে তার দায়িত্বকাল মোটামুটি সাড়ে তিন মাস বেড়ে আগামী ৩ জুলাই পর্যন্ত রয়েছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]