• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]ঈদের বেচাকেনা কমেছে ৯১ দশমিক ৬৭ শতাংশ [২]জুন নাগাদ ২০ শতাংশ কর্মী ছাঁটাইর আশঙ্কা : হেলাল উদ্দিন


[১]ঈদের বেচাকেনা কমেছে ৯১ দশমিক ৬৭ শতাংশ [২]জুন নাগাদ ২০ শতাংশ কর্মী ছাঁটাইর আশঙ্কা : হেলাল উদ্দিন

আমাদের নতুন সময় : 27/05/2020

শরীফ শাওন : [৩] দোকান মালিক সমিতির সভাপতি আরও বলেন, প্রতি বছর ঈদে ৫০ থেকে ৬০ হাজার কোটি টাকার বেচাকেনা হয়। করোনা মহামারীতে এবার তা কমে দাঁড়িয়েছে ৪ থেকে ৫ হাজার কোটি টাকায়। করোনা সংক্রমণ এড়াতে ২৬ মার্চ থেকে দোকানপাট বন্ধ করা হয়। ১০ মে খোলা হলেও স্বাস্থ্যবিধ মেনে কার্যক্রম চালানো অসম্ভব হবে বিধায় দেশের বড় এবং ব্যস্ততম শপিংমলগুলো বন্ধ রাখে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।
[৪] তিনি বলেন, সংকটময় পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। দেশে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর সংখ্যা ৫৬ লাখ এবং কর্মচারী ১ কোটি ২০ লাখ। এর মধ্যে যারা ফুটপাতে, ভ্যানে ব্যবসা করেন বা চা দোকানদার, তাদের অর্ধেক নিশ্চহ্ন হয়ে যেতে পারে। কর্মচারিদের বসিয়ে বেতন দেয়ার ক্ষমতা না থাকায় ইতোমধ্যে কর্মচারী ছাঁটাই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। অনেকটা বাধ্য হয়েই তারা এ সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন।
[৫] হেলাল উদ্দিন জানান, প্রতিদিন বাড়ছে করোনায় শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা। ক্রান্তিকাল কবে হবে সেই শঙ্কা থেকেই যায়। এদিকে দোকানপাট বন্ধ থাকায় প্রতিদিন বাড়ছে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান। এখন এর হিসেব করার পরিস্থিতি নেই বরং অস্তিত্ব রক্ষা করাই বড় সংকট। তবে সরকারের দেয়া প্রণোদনার ঋণকে সঠিক ভাবে কাজে লাগাতে পারলে এ পরিস্থিতি থেকে সামান্য হলেও পরিত্রাণ পাওয়া যেতে পারে। সম্পাদনা: সিরাজুল ইসলাম




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]