• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার বিচার ও ক্ষতিপূরণ দাবি ঢাকার [২]চীনের তীব্র নিন্দা [৩]মৃত ও নিখোঁজ ২৪ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে


[১]লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশিকে হত্যার বিচার ও ক্ষতিপূরণ দাবি ঢাকার [২]চীনের তীব্র নিন্দা [৩]মৃত ও নিখোঁজ ২৪ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে

আমাদের নতুন সময় : 30/05/2020

তরিকুল ইসলাম : [২] পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন আরও বলেন, বেঁচে যাওয়াদের কাছ থেকে ভূক্তভোগীদের পরিচয় জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। বাংলাদেশে পাচারকারীর তথ্য জানার চেষ্টা করা হচ্ছে যেন তাদের আইনের আওতায় আনা যায়।
[৩] লিবিয়ার জাতিসংঘ সমর্থিত সরকার জানিয়েছে, লিবিয়ার একজন মানব পাচারকারীকে হত্যার প্রতিশোধ নিতে ২৬ জন বাংলাদেশি সহ ৩০ জন অভিবাসন প্রত্যাশীকে হত্যা করেছে ঐ পাচারকারীর পরিবারের সদস্যরা। বাংলাদেশি বাদে মারা যাওয়া অন্য ৪ জন আফ্রিকান বংশোদ্ভূত।
[৬] ‘নিখোঁজ বা মৃত’ ২৪ জন হচ্ছেন, গোপালগঞ্জের সুজন ও কামরুল; মাদারীপুরের জাকির হোসেন, সৈয়দুল, জুয়েল ও ফিরুজ, জুয়েল ও মানিক, টেকেরহাটের আসাদুল, আয়নাল মোল্লা (মৃত) ও মনির, ইশবপুরের সজীব ও শাহীন, দুধখালীর শামীম; ঢাকার আরফান (মৃত); টাঙ্গাইলের লাল চান্দ; কিশোরগঞ্জের ভৈরবের রাজন, শাকিল, সাকিব ও সোহাগ, রসুলপুরের আকাশ ও মো. আলী, হোসেনপুরের রহিম (মৃত) এবং যশোরের রাকিবুল। সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
[৪] হামলা থেকে বেঁচে যাওয়া একজন আহত বাংলাদেশি নাগরিকের বরাত দিয়ে দেশটিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম বিষয়ক কাউন্সিলর আশরাফুল ইসলাম বিবিসি বাংলাকে জানান, ওই ২৬ জন সহ মোট ৩৮ জন বাংলাদেশি ও কিছু সুদানি নাগরিক প্রায় ১৫ দিন ধরে মিজদা শহরে ঐ অপহরণকারী চক্রের হাতে আটক ছিলেন।
[৭] গতকাল ঢাকায় চীন দূতাবাস নিন্দা জানিয়ে বলেছে, সেখানে নিহতদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি আমরা সমবেদনা জানাই। সম্পাদনা : ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]