• প্রচ্ছদ » » ২০০১-২০০৬ সালের বিএনপি-জামায়াত জোটের নির্যাতনের সময় সিকদার মেডিকেলের ভ‚মিকা এবং সিকদার গ্রæপের দুই পুত্রের বিদেশ যাত্রা


২০০১-২০০৬ সালের বিএনপি-জামায়াত জোটের নির্যাতনের সময় সিকদার মেডিকেলের ভ‚মিকা এবং সিকদার গ্রæপের দুই পুত্রের বিদেশ যাত্রা

আমাদের নতুন সময় : 01/06/2020

মুনশি জাকির হোসেন

পুঁজিবাদে কর্পোরেট কালচারের আধিপত্য নিয়ে নতুন কিছুই বলার নেই, এটি এখন প্রতিষ্ঠিত সত্য। কিন্তু এই কর্পোরেট কালচার সরকার গঠনে, যুদ্ধ বাঁধানো, সরকার পরিবর্তনে কতোটা প্রভাব বিস্তার করে, কতোটা ক্যাটালিক ফোর্স হিসেবে কাজ করে? এটি বোঝার জন্য কয়েকটি উদহারণ দেখা যেতে পারে। হ্যালিবার্টন কোম্পানি তেল, গ্যাস এবং সামরিক যন্ত্রপাতি প্রস্তুত করে। এই কোম্পানি আমেরিকান নির্বাচনে প্রায়শই তহবিল যোগান দেয়। তবে বুশের ক্ষমতায় আসার পেছনে এই কোম্পানির অর্থায়ন এবং ডিক চেনীর অবদান অনেকটা প্রকাশ্য। বুশ প্রতিদান দেওয়ার জন্য ডিক চেনীকে ডিফেন্স সেক্রেটারি করে, সাথে কন্ডোলিৎসা রাইস। এই দুইজন মোটামুটি ইরাক আগ্রাসনের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করে, বুশ মাত্র ঘোষণা করে। এতোকিছুর মূলে ওই হ্যালিবার্টন! ইরাক আগ্রাসনের সবচেয়ে লাভবান হলো এরা। একদিকে কুয়েত, ইরাক, সৌদির তেল, গ্যাস বাণিজ্য। অন্যদিকে মার্কিন সেনাদের জন্য সরঞ্জাম সাপ্লাইয়ের কাজ। একটি কোম্পানি কীভাবে বাণিজ্যিক কারণে পুরো বিশ্বের ভ‚-রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক হিসাব-নিকাশ উল্টে দিতে পারে সেটি বোঝার জন্য এটি একটি ভালো ডিসকোর্স।
আবার ইরানের শাহ সরকারের পতন, তথা কথিত খোমেনির ইসলামিক রিভোলিউশনস। আসল ঘটনা হলো, শাহ সরকার কতৃক ফ্রান্স/বৃটিশ তেল কোম্পানি গুলোর জাতীয়করণ। এর পরেই এই কোম্পানি শাহ সরকারকে উৎখাত করতে দেদারছে টাকা খরচ করেছিল। এমনকি খোমেনিকে চার্টার বিমানে করে ফ্রান্স থেকে তেহরানে নেওয়ার টাকাও নাকি ওই তেল কোম্পানির দেওয়া। ইরানের প্লট পরিবর্তন করে মূলত ইঙ্গো-মার্কিন-ফিরিঙ্গি মিলে মিশে। এখানে ইসলামি রিভোলিউশনস একটি ফালতু ডিসকোর্স।
আজকে আমরা শিকদার গ্রæপের দুই পুত্রের ফৌজদারি অপরাধের পর বিশেষ বিমানে দেশ ত্যাগের বিষয় দেখছি। এটি একটি সত্য। আরেকটি সত্য হলো এই শিকদার মেডিকেলই ২০০১-০৬ সালে বিএনপি-জামাতের হাতে নির্যাতনের শিকার আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগের হাজার হাজার নেতা কর্মীর চিকিৎসার শেষ ভরসা ছিল। তখন র‌্যাবের ক্রসফায়ার, পুলিশি হামলা, হুমকির কারণে অনেক হাসপাতাল যখন কাউকে ভর্তি করতে না তখন শিকদার হাসপাতাল সেগুলো করেছিল। স্বাভাবিকভাবেই বোঝা যায়, তারা এই সরকার থেকে কমবেশি সুযোগ সুবিধা পাবে। কিন্তু যেভাবে সর্বশেষ ঘটনা ঘটলো তাতে শেষ বিচারে সকলেই ক্ষতিগ্রস্ত হলো। ক্ষমতার এতোটা অপব্যবহার দরকার ছিল না। মানুষ এক সময়ে নিজেকে আল্লাহর থেকেও ক্ষমতাবান ভাবা শুরু করে। এখানেও তেমন কিছু ঘটেছে। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]