• প্রচ্ছদ » » আমেরিকার গণতন্ত্রের সৌন্দর্য তারা একটি খুনের প্রতিবাদ করতে নামলে প্রতিবাদ করতে দেওয়া হয়


আমেরিকার গণতন্ত্রের সৌন্দর্য তারা একটি খুনের প্রতিবাদ করতে নামলে প্রতিবাদ করতে দেওয়া হয়

আমাদের নতুন সময় : 04/06/2020

কামরুল হাসান মামুন

পুলিশের বর্বরোচিত নির্যাতনের শিকার হওয়া আফ্রিকান-আমেরিকান জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে কেবল আমেরিকাজুড়ে না কানাডা, ইউরোপ জুড়েও চলছে বিক্ষোভ। খোদ আমেরিকায় এর বিক্ষোভ এতোটাই ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে যে, বিক্ষোভকারীরা যখন হোয়াট হাউজের সামনে বিক্ষোভ করছিল তখন সবচেয়ে ক্ষমতাধর রাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টকেও ভয়ে গর্তে লুকাতে হয়েছে। আমেরিকার অনেক সমস্যা কিন্তু তারপরেও তারা এমন একটি রাষ্ট্র গঠন করতে পেরেছে যেখানে জনগণই আসলে সকল ক্ষমতার উৎস। আবার একই সাথে জনগণই সেই গণতন্ত্রের প্রহরী। একটি মৃত্যুকে কেন্দ্র করে গোটা রাষ্ট্র করোনা প্যান্ডেমিকে নাস্তানাবুদ হওয়া সত্তে¡ও একটি মানুষের মৃত্যুর প্রতিবাদে মানুষ হাজারে হাজারে রাজ্যে রাজ্যে রাস্তায় নেমে এসেছে। তারা এতটাই ক্ষুব্ধ যে দোকানপাট গাড়ি ভাঙচুর করছে। একই সাথে একদল লোক যারা করোনা প্যান্ডেমিকে কাজ না থাকায় অর্থকষ্টে ভুগছিল তারা সুযোগ বুঝে লুটপাটও করছিল। তবে এই লুটপাট আজকে নতুন না।
প্রাকৃতিক দুর্যোগে যদি বø্যাকআউট হয় তখনও সেই অন্ধকারের সুযোগে একদল দুষ্কৃতিকারী লুটতরাজে নেমে যায়। আমেরিকার গণতন্ত্রের সৌন্দর্য এই যে তারা একটি খুনের প্রতিবাদ করতে নামলে তাদের প্রতিবাদ করতে দেওয়া হয়। এই প্রতিবাদ থামাতে গিয়ে কিছু পুলিশ আবার একটু অতিরিক্ত মারমুখী হওয়ায় তাদেরও শাস্তি হচ্ছে। আমেরিকার গণতন্ত্রের সৌন্দর্য এইখানে যে এই মৃত্যুর প্রতিবাদে বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে আমেরিকার পুলিশ প্রধান তার প্রেসিডেন্টকে বলতে পারে, ‘আপনি যদি গঠনমূলক কিছু বলতে ব্যর্থ হন, তাহলে ভালো হয় যদি আপনি আপনার মুখ বন্ধ রাখুন’। আমাদের এখানে সরকারি কোনো কর্মকর্তা বলতে পারবেন এমনভাবে? উল্টো তারা বক্তব্য দেওয়ার সময় বক্তব্যের একটা বড় অংশ ব্যয় করে প্রধানমন্ত্রীর গুণকীর্তনে। দেখুন এখন করোনা কালে প্রতিদিন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিবৃতি দেওয়ার সময় প্রতিদিনই একটা বড় সময় ধরে কয়েকবার বলবে, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে’। একই কথা প্রতিদিন কেন বলতে হবে? কেন সময়ের এই অপচয়? কেন এই তোষামোদী? আমি মনে করি প্রধানমন্ত্রীর উচিত এই বিষয়ে একটি সরকারি নির্দেশনা দেওয়া যে এখন থেকে যেন কেউ এই অতি স্তুতি বাক্য ব্যবহার থেকে বিরত থাকে। আমাদের দেশে হরহামেশাই কতো গুম, খুন, জেল-জুুলুুমের ঘটনা ঘটে। মানুষ কি তার প্রতিবাদ করে? কেবল সংবিধানে থাকলেই হলো না যে ‘জনগণই সকল ক্ষমতার উৎস’। মাঝে মাঝে সেই ক্ষমতাটা দেখাতেও হয়। মানুষকে গণতন্ত্র রক্ষায় প্রহরীর মতো কাজ করতে হয়। সেইটা অনুপুস্থিত বলেই আমাদের দেশের এই অবস্থা। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]