• প্রচ্ছদ » » কামাল লোহানীর মতো মানুষের অবদান বলে শেষ করা যাবে না


কামাল লোহানীর মতো মানুষের অবদান বলে শেষ করা যাবে না

আমাদের নতুন সময় : 21/06/2020

শরিফুল হাসান : করোনা শুধু যে কিছু মানুষকে নিয়ে যাচ্ছে তাই নয়, নিয়ে যাচ্ছে আমাদের বহু ইতিহাসের নায়ককেও। এই যেমন আজ সকালে চলে গেলেন এই বাংলাদেশ গড়ার কারিগরদের একজন খ্যাতিমান সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিক কামাল লোহানী। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন। কামাল লোহানীকে আমি বেশ কাছে থেকে দেখেছি কিছুটা সময়। তারেক মাসুদ আর মিশুক মুনীর মারা যাওয়ার পর নিরাপদ সড়কের দাবিতে যে আন্দোলন হয়েছিল, তাতে কামাল লোহানী স্যারের ছেলে সাগর লোহানী ভাই আমাদের সঙ্গে ছিলেন। গত কয়েকদিন ধরেই সাগর ভাইয়রে স্ট্যাটাসগুলো দেখছিলাম বাবাকে নিয়ে। গত কিছুদিন ধরেই ফুসফুস ও কিডনির জটিলতা ছাড়াও হৃদরোগ ও ডায়াবেটিসের সমস্যাতেও ভুগছিলেন। এর মধ্যে তিনি করোনায় আক্রান্ত হলে তাকে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে নেওয়া হয় বলে গতকাল রাতে নিজেরে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন ছেলে সাগর লোহানী। বাবার মৃত্যুর খবর দিয়ে লেখেন, ‘বেঁধে রাখতে পারলাম না বাবাকে’। আসলেই আমরা বেঁধে রাখতে পারলাম না। সাংবাদিকতা, ছায়ানট, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী, একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কোথায় ছিলেন না কামাল লোহানী। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালকও ছিলেন তিনি। এই দেশের জন্য কামাল লোহানীর মতো মানুষের অবদান বলে শেষ করা যবে না। পরপারে ভালো থাকুন স্যার।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]