[১]বাংলাদেশে চীনের ভ্যাকসিন তৃতীয় ট্রায়ালের দিন-ক্ষন ঠিক হয়নি

আমাদের নতুন সময় : 30/06/2020

লাইজুল ইসলাম : [২] স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ জানিয়েছিলেন, চীনের ভ্যাকসিনের তৃতীয় ট্রায়াল বাংলাদেশে হবে। সঙ্গে ভ্যাকসিন তৈরির সুযোগও পাওয়া যাবে। কিন্তু এগুলো কবে নাগাদ শুরু হবে সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
[৩] মন্ত্রণালয় সূত্র বলছেন, এটা এখন দুই দেশের রাজনৈতিক সম্পর্কের মাধ্যমে ডিল হচ্ছে। চীনের ভ্যাকসিন শুধু ট্রায়ালের জন্য নয়, কথা হচ্ছে উৎপাদনের বিষয়েও। স্বাস্থ্যমন্ত্রী নিজেই বিষয়টি তদারকি করছেন। জুলাই মাসেই শুরু হতে পারে ট্রায়াল। কিন্তু নিশ্চিত বলা যাচ্ছে না।
[৪] রোগতত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষনা ইন্সটিটিউটের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এম এম মুসতাক আহমেদ বলেন, ট্রায়াল হলে সবচেয়ে বেশি উপকৃত হবে দেশের মানুষ। এই ট্রায়ালের মাধ্যমে দেশের মানুষ সুস্থ হয়ে গেলে সার্বজনিন ওষুধটি দেয়া যাবে। এছাড়া উৎপাদনের জন্যও আমরা জোর দিয়ে বলতে পারবো। তবে এতে দুই দেশের রাজনৈতিক সম্পর্ক অনেকটা সহযোগিতা করতে পারে।
[৫] জানাগেছে, চীনের ভ্যাকসিন বাংলাদেশে ট্রায়াল হলে এর উৎপাদন করবে ইনসেপ্টা।[৬] ভ্যাকসিন উদ্ভাবক প্রতিষ্ঠান সিনোভেক বায়োটেকের সঙ্গে এখনো বাংলাদেশী প্রতিষ্ঠানের চুক্তি হয়নি। ভ্যাকসিন বিষয়ে চুক্তির পর ওষুধ প্রশাসন ট্রায়ালের অনুমোদন দেবে। আইসিডিডিআরবি হতে পারে স্থানীয় সেই প্রতিষ্ঠান।
[৭] সূত্র জানায়, কত লোকের ওপর ট্রায়াল হবে তা এখনো ঠিক করা হয়নি।
[৮] কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন ট্রায়ালের রিসার্চে বাংলাদেশের পক্ষে কোন বিজ্ঞানি নেতৃত্ব দেবেন তাও এখনো নিশ্চিত করা হয়নি।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]