[১]বিশেষ আইনের মামলায় তামাদি মেয়াদ নিয়ে জটিলতা

আমাদের নতুন সময় : 05/07/2020

নূর মোহাম্মদ : [২] করোনার কারণে ১০ মে সুপ্রিম কোর্ট থেকে উচ্চ আদালত এবং নিম্ন আদালতের জন্য পৃথক প্র্যাকটিস নির্দেশনা জারি করা হয়। [৩] কিন্তু কোন নির্দেশনায় বিভিন্ন আইনে মামলা এবং অন্যান্য দরখাস্ত দায়েরের তামাদির বাধ্যবাধকতা সম্পর্কে কিছুই উল্লেখ নেই। ৭ জুন সুপ্রিম কোর্ট থেকে এনআই অ্যাক্টের মামলা দায়েরের নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরপর বিভিন্ন বার ও ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকেও এনআই অ্যাক্টের মামলা দায়েরে নির্দেশনা দেয়া হয়।[৪] তামাদি আইনের ৪ ধারা মোতাবেক আদালত বন্ধ থাকাবস্থায় তামাদি মেয়াদ অতিক্রম করলে আদালত খোলার প্রথম দিন আবেদন দায়ের করা যায়। তবে আদালতের স্বাভাবিক কাজ চালু না হওয়ার মধ্যেই এনআই অ্যাক্টের মামলা দায়েরের নির্দেশনা নিয়ে জটিলতা তৈরি হয়েছে। অন্যান্য বিষয়ে কোন কিছু উল্লেখ না থাকায় তামাদির মেয়াদ পার হওয়ার মামলা দায়ের নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। উল্লেখ্য, বিশেষ আইনের ক্ষেত্রে তামাদি মেয়াদ মওকুফ না করতে সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত রয়েছে। এ বিষয়টি জেনারেল ক্লজেজ অ্যাক্টের ১০ ধারাতেও বলা আছে।
[৫] এদিকে তামাদির মেয়াদ বিষয়ে নির্দেশনা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে নোটিশ দিয়েছিলেন আইনজীবী মুহাম্মদ শিশির মনির। তবে এখনো এ বিষয়ে কোন নির্দেশনা জারি হয়নি। [৬] সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, বিশেষ আইনসহ সব ক্ষেত্রে একই বিধান প্রযোজ্য হবে। মামলা দায়েরের পর আইনজীবী বললে আদালত তা গ্রহণ করে নিবে। সেটা আদালতের দায়িত্ব।
[৭] সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ বলেন, এখানে সুপ্রিম কোর্ট একটি ব্যাখ্যা দিতে পারে। তবে নিয়মিত আদালত খোলার পর কোন বিচারক মামলা গ্রহণ করতে না চাইলে হাইকোর্টে আসলে তখনও ব্যাখ্যা আসতে পারে। সম্পাদনা: ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com