• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]রিজেন্ট সাহেদের বিরুদ্ধে হত্যা, অবৈধ সম্পদ অর্জন ও মেয়াদোত্তীর্ণ লাইসেন্সের জন্যে পৃথক মামলা হওয়া উচিৎ, আইনজ্ঞদের অভিমত


[১]রিজেন্ট সাহেদের বিরুদ্ধে হত্যা, অবৈধ সম্পদ অর্জন ও মেয়াদোত্তীর্ণ লাইসেন্সের জন্যে পৃথক মামলা হওয়া উচিৎ, আইনজ্ঞদের অভিমত

আমাদের নতুন সময় : 12/07/2020

নূর মোহাম্মদ : [২] চিকিৎসার নামে প্রতারণার অভিযোগে রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদসহ ১৭ জনকে আসামি করে মামলা করেছে র‌্যাব। যাতে দ-বিধির ৪৬৮ অপরাধ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ সাত বছরের কারাদ- হতে পারে। এর বাইরে বিভিন্ন অভিযোগে তার বিরুদ্ধে অন্তত ৩২টি মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে।
[৩] সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ বলেন, সাহেদ প্রতারণা করে অবৈধভাবে অর্থ উপার্জন করেছে। তাই প্রতারণার সঙ্গে এ বিষয়েও মামলা করা দরকার। সঠিক চিকিৎসার অভাবে কেউ মারা গেলে হত্যা মামলা করা যেতে পারে। তবে সময়ক্ষেপণের সুযোগ নেই। দ্রুত তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া উচিৎ। [৪] সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়ে দুদক মামলা করবে। এটা মানিলন্ডারিং আইনেও অপরাধ। হাসপাতালের লাইসেন্স নবায়ন না থাকার অভিযোগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দ্রুত মামলা করা দরকার। এটি হলে ৬ মাসের জেল এখনই হবে।
[৫] তিনি বলেন, চিকিৎসা অবহেলায় মারা গেলে দ-বিধির ৩০৪ (ক) ধারায় মামলা করা যাবে। এছাড়া ৩০২ ধারায় হত্যা মামলাও করা যাবে। মিথ্যা রিপোর্টের কারণে বা সঠিক চিকিৎসার অভাবে মারা গেলে ক্ষতিগ্রস্থ যে কেউ মামলা করতে পারবে। কেননা সাহেদ পরিকল্পনা অনুযায়ী ইচ্ছাকৃতভাবেই রোগীদেরকে চিকিৎসা বঞ্চিত করেছে। [৬] দুদকের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, সাহেদ একজন প্রতারক। তবে সরকারি দলের অনেকের পৃষ্ঠ পোষকতা পেয়েছে সেটা পরিষ্কার। দুদক অনুসন্ধান করছে। আশাকরি দ্রুতই পদক্ষেপ নিবে। সরকারেরও বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখা উচিৎ। কারণ এটা সরকারের ইমেজের প্রশ্ন। আর লাইসেন্স না থাকার পরও কিভাবে হাসপাতাল চালিয়েছে এজন্য সংশ্লিষ্টদেরও শোকজ করা উচিৎ বলে মনে করেন তিনি। সম্পাদনা: ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com