• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]ব্যাংকে ঋণ নিতে অনেকেই যাচ্ছে না, এমনকি চামড়া ব্যবসায়ীরাও [২]অল্প আবেদনকারীদের বেশিরভাগই ২ শতাংশের পুনঃতফশীলকারী


[১]ব্যাংকে ঋণ নিতে অনেকেই যাচ্ছে না, এমনকি চামড়া ব্যবসায়ীরাও [২]অল্প আবেদনকারীদের বেশিরভাগই ২ শতাংশের পুনঃতফশীলকারী

আমাদের নতুন সময় : 29/07/2020

বিশ্বজিৎ দত্ত: [৩] করোনাকালীন অর্থনীতি উদ্ধারে সরকার কয়েকটি আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করে। যার বেশির ভাগই বাংলাদেশ ব্যাংকের ঋণ নির্ভর প্রণোদণা। সবচেয়ে বড় প্রণোদনাটি ছিল বড় শিল্পগ্রুপের ওয়ার্কিং ক্যাপিট্যাল বাবদ ৩০ হাজার কোটি টাকার ঋণ। যাতে গ্রহিতাকে সুদ দিতে হবে মাত্র ৫ শতাংশ। কিন্তু এই ঋণেও তেমন সাড়া দেয়নি বড় প্রতিষ্ঠানগুলো। তাই এই ঋণ থেকে ২৫০০ কোটি টাকা আবার গার্মেন্ট শ্রমিকদের বেতনের হিসাবে দেয়া হয়েছে। জুন পর্যন্ত এই প্যাকের ঋণ অনুমোদন হয়েছে সব মিলিয়ে ৩০০০ কোটি টাকা। [২] ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের ২০০০ হাজার কোটি টাকা ঋণের মধ্যে জুন পর্যন্ত অনুমোদন হয়েছে মাত্র ৩৫০ কোটি টাকা। ব্যাংকাররা এই ঋণ দিতে আগ্রহী নয়। আবার ঋণগ্রহীতারাও বলছে ব্যবসা নাই ঋণ নিয়ে কি করবো। [৩] কৃষি ঋণ দেয়া হয়েছিল ৫০০০ কোটি টাকার কিন্তু বিতরণ হয়েছে মাত্র ২০০ কোটি টাকা। [৪] সর্বশেষ চামড়া ক্রয়ের জন্য সরকার ৪৩৫ কোটি টাকা ঋণ ঘোষণা করেছে। এই ঋণ নিতেও ভাল চামড়া ব্যবসায়ীরা আসছেন না। [৫] কয়েকটি ব্যাংকের এমডি জানান, ব্যবসায়ীরা ঋণে আসছেনা কারণ তারা দেখছে আগামীতে কি হবে। আর যারা আবেদন করছে তাদের বেশির ভাগই পুরোনো খেলাপী তারা সুযোগ নিতে চাচ্ছে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com