• প্রচ্ছদ » » পরিমাণের চেয়ে বেশি মাংস খেলে বদ-হজম পাতলা পায়খানা ও বমির মতো শারীরিক সমস্যা হতে পারে : ডা. লেলিন চৌধুরী


পরিমাণের চেয়ে বেশি মাংস খেলে বদ-হজম পাতলা পায়খানা ও বমির মতো শারীরিক সমস্যা হতে পারে : ডা. লেলিন চৌধুরী

আমাদের নতুন সময় : 30/07/2020

আব্দুল্লাহ মামুন : [২] এই প্রিভেন্টিভ মেডিসিন বিশেষজ্ঞ আরও বলেন, গরু, ছাগল ও ভেড়ার মাংস আমাদের জন্য পুষ্টিকর। কিন্তু কেউ যদি প্রয়োজনের বেশি খেয়ে ফেলেন, তাহলে শরীরে কতোগুলো সমস্যা তৈরি হয়। কিছু তাৎক্ষণিক সমস্যা হয়, যেমন : বদ-হজম, পেটে সমস্যা, পাতলা পায়খানা, বমি ইত্যাদি। দীর্ঘ মেয়াদী সমস্যার মধ্যে, পশুর মাংসে একধরনের চর্বি থাকে, এটি শরীরের খারাপ কোলেস্ট্ররেল বাড়িয়ে দেয়। ফলে যাদের হৃদ রোগ, উচ্চরক্ত চাপের সমস্যা আছে, তাদের শরীরে তার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। আবার যারা ডায়াবেটিক রোগী, তারা অতিরিক্ত মাংস খাওয়ার কারণে রক্তে সুগার বাড়িয়ে দিয়ে ভারসাম্যহীনতা তৈরি করতে পারে।
[৩] আমাদের উচিত প্রতিদিনের জীবনযাপনে যে পরিমাণ মাংস খাই, কোরবানির মাংসও সে পরিমাণ খাওয়া উচিত। শারীরিকভাবে সুস্থ ব্যক্তিরা কিছুটা বেশি খেতে পারেন। কিন্তু কেউ যদি মনে করেন বছরে একবার পেলাম, গোগ্রাসে খেয়ে অসুস্থ হলাম, এমনটি যেন না হয়। [৪] করোনাকালে কোরবানির পশু ক্রয় থেকে শুরু করে কোরবানি ও মাংস বিতরণ পযর্ন্ত আমাদের সর্তক অবস্থানে থাকতে হবে। পশুর হাটে যেতে হলে অবশ্যই মাস্ক, গøাভস এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে। পশু কোরবানির সময় যতো কম লোককে যুক্ত করা যায়, ততোই ভালো। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন, মাংস কাটা ও মাংস বিতরণ সম্পন্ন করতে হবে সঙ্গে সঙ্গে, অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি বাধ্যতামূলক মানাতে হবে ।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com