• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]চীনের দখলে প্যাঙ্গং লেকের উত্তরে ‘গ্রিন টপ’, ঘাঁটি গেড়েছে লাল ফৌজ


[১]চীনের দখলে প্যাঙ্গং লেকের উত্তরে ‘গ্রিন টপ’, ঘাঁটি গেড়েছে লাল ফৌজ

আমাদের নতুন সময় : 04/08/2020

রাশিদ রিয়াজ : [২] পঞ্চমবার চীন-ভারত কোর কম্যান্ডার পর্যায়ের বৈঠকের পরেও সমাধানসূত্র মেলেনি। প্যাঙ্গং লেকের ফিঙ্গার এলাকা, দেপসাং সমতলভূমি থেকে সেনা সরাতে নারাজ চীন। প্যাঙ্গং লেকের উত্তরে সবুজে ঢাকা বিস্তীর্ণ উপত্যকাতেও ঘাঁটি গেড়ে রয়েছে লাল ফৌজ। ওই এলাকা ভারতীয় সেনাবাহিনীর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চীনের সেনা ওই উপত্যকায় নিজেদের আধিপত্য কায়েম রাখায় সেখানে ভারতীয় সেনার টহলদারি কার্যত বন্ধ। দি ওয়াল [৩] এদিকে গোগরার পেট্রল পয়েন্ট ১৭এ, দেপসাং ভ্যালির কাছে ১৩ নম্বর পেট্রল পয়েন্টেও চীনের বাহিনী এখনও সক্রিয়। রোববার পঞ্চম দফায় চুসুল সীমান্ত লাগোয়া চীন-নিয়ন্ত্রিত মলডোতে বৈঠক হয় ভারতীয় সেনার ১৪ নম্বর কোরের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরেন্দ্র সিংহ এবং চীনের শিনজিয়াং মিলিটারি ডিস্ট্রিক্ট কমান্ডার মেজর জেনারেল লিউ লিনের।[৪] পূর্ব লাদাখের বেশ কয়েকটি স্পর্শকাতর এলাকা থেকে সেনা সরাতে রাজি নয় চীন। লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় শান্তি ফিরিয়ে আনতেই দুই দেশের মধ্যে সামরিক ও কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা চলছে। প্যাঙ্গং লেক সহ পূর্ব লাদাখের একাধিক এলাকা থেকে সেনাবাহিনী সম্পূর্ণ প্রত্যাহারের জন্য চীনের উপর চাপ বাড়িয়েছে ভারত। কিন্তু গালওয়ান নদী উপত্যকা, গোগরা, হট স্প্রিং সহ কিছু এলাকায় মুখোমুখি অবস্থান থেকে সামান্য সেনা পিছানো (ডিসএনগেজমেন্ট) ছাড়া তেমন কোনও কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি চীনকে। সম্পাদনা: ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com