• প্রচ্ছদ » আমাদের বাংলাদেশ » [১]কোভিডের কারণে মরুভূমির ‘গোরস্তানে’ গিয়েছিলো ১৫ হাজার উড়োজাহাজ [২]এখনও আছে ৮ হাজার, অপেক্ষা অনির্দিষ্টকাল


[১]কোভিডের কারণে মরুভূমির ‘গোরস্তানে’ গিয়েছিলো ১৫ হাজার উড়োজাহাজ [২]এখনও আছে ৮ হাজার, অপেক্ষা অনির্দিষ্টকাল

আমাদের নতুন সময় : 05/08/2020

সালেহ্ বিপ্লব: [৩] কোভিডের কারণে অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে যে, কোনো কোনো এয়ারলাইন তাদের অনেক উড়োজাহাজ বিশ্বের একেবারে প্রত্যন্ত এলাকায় রেখে এসেছে অনির্দিষ্ট কালের জন্য। বিবিসি বাংলা [৪] গত মাসে অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় এয়ারলাইন্স কোয়ান্টাস তাদের সর্বশেষ বোয়িং ৭৪৭ বিমানটিকেও সিডনি থেকে পাঠিয়ে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় মোহাভি মরুভূমিতে।
[৫] এই বিমানটির ৫০ বছরের আকাশজীবন, এতে চড়েছেন লাখো মানুষ। যাত্রীদের মধ্যে রয়েছে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ থেকে শুরু করে ১৯৮৪ সালের পর থেকে অস্ট্রেলিয়ার অলিম্পিক টিমের সকল সদস্য।[৬] কোয়ান্টাস তাদের এ-৩৮০ সুপার জাম্বো বিমানগুলোকেও অন্তত ২০২৩ সাল পর্যন্ত মোহাভি মরুভূমিতে ফেলে রাখার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে। [৭] উড়োজাহাজ রাখার জন্যেও যথেষ্ট জায়গা না থাকায় অনেক কোম্পানি বেছে নিয়েছে শুস্ক মরুভূমির মতো প্রত্যন্ত এলাকাকে। এরকম জায়গাকে বলা হয় ‘এয়ারলাইনের গোরস্তান’ বা বোনইয়ার্ড। [৮] বাণিজ্যিক এয়ালাইনগুলো তাদের উড়োজাহাজ বসিয়ে রাখার জন্য এধরনের উন্মুক্ত জায়গা খুঁজে থাকে। [১০] ফ্লাইট সংক্রান্ত ওয়েবসাইট ফ্লাইটরাডার২৪ এর ইয়ান পেটচেনিক জানান, বেসরকারি উদ্যোগে পরিচালিত এরকম কিছু জনপ্রিয় পার্কিং স্থাপনা যুক্তরাষ্ট্র, স্পেন ও অস্ট্রেলিয়ায় মরুভূমিতে অবস্থিত। সম্পাদনা : ইকবাল খান, খালিদ আহমেদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com