নেইমার – এমবাপেদের স্বপ্ন ভেঙে ইউরোপ সেরা বায়ার্ন মিউনিখ

আমাদের নতুন সময় : 25/08/2020

এল আর বাদল : লিসবনে রোববার রাতের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে দুই দলের মাঝে ব্যবধান গড়ে দিয়েছে কিংসলে কোমানের একমাত্র গোল। ২০১২-১৩ মৌসুমের পর আবারও ইউরোপ সেরার ট্রফি জিতল জার্মানির বায়ার্ন মিউনিখ।
আক্রমণাত্মক ফুটবলে অদম্য হয়ে ওঠা বায়ার্ন চলতি মৌসুমে সম্ভাব্য সবকটি শিরোপাই ঘরে তুলল। ২০২০-এ কোনো ম্যাচ না হারা দলটি এই নিয়ে টানা ২১ ম্যাচ জয়ের পথে উঁচিয়ে ধরল বুন্দেসলিগা, জার্মান কাপ ও এই চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা। ক্লাবের সমৃদ্ধ ইতিহাসে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার ‘ট্রেবল’ জিতল মিউনিখের দলটি। প্রথমবার তারা জিতেছিল ২০১২-১৩ মৌসুমে, ইয়ুপ হেইঙ্কেসের কোচিংয়ে। নেইমার-এমবাপেদের মতো তারকাদের কাঁধে ভর করে প্রথম ফাইনালেই বাজিমাত করার স্বপ্ন বুনেছিল পিএসজি। প্রতিপক্ষের অতি-আক্রমণাত্মক কৌশলে বিপরীতে গতিময় ফুটবলে অসাধারণ কিছু করে দেখানোর স্বপ্ন দেখেছিল দলটি। কিন্তু মাঠে নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি তারা।
ডিফেন্স লাইন ওপরে টেনে সেই পুরনো কৌশলেই খেলেছে বায়ার্ন। তাতে প্রতিপক্ষের সীমানায় ফাঁকা জায়গা তৈরি হলেও সেই সুযোগ নিতে পারেনি পিএসজি। তাদের খেলায় চেনা গতির অভাবও ছিল বেশ। গোল হজমের পর তো আরও খেই হারিয়ে ফেলে তারা। শুরু ও শেষে ভালো কিছু সুযোগ পেলেও ফিনিশিংয়ের ব্যর্থতায় মিলেছে শুধুই হতাশা। প্রতিযোগিতাটিতে টানা ৩৪ ম্যাচে গোল করার আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নেমেছিল পিএসজি। কিন্তু ফাইনালে এসেই জালের দেখা পেল না দলটি। আসরের প্রথম ১০ ম্যাচে এক দলের গোল ৪২টি, আরেক দল চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ কবে জালের দেখা পায়নি, সেটাই সবাই ভুলতে বসেছিল। আক্রমণভাগে ছন্দে থাকা দারুণ সব ফরোয়ার্ড থাকার পরও প্রথমার্ধে খুব ভালো সুযোগ তৈরি করতে ভুগলো বায়ার্ন ও পিএসজি।- গোল ডটকম




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : info@amadernotunshomoy.com