• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]ভারত রপ্তানি বন্ধ করায় বাজারে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম, বিকল্প খুঁজছে বাংলাদেশ [২]এমাসেই চীন, পাকিস্তান থেকে আসছে ২০ হাজার টন


[১]ভারত রপ্তানি বন্ধ করায় বাজারে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম, বিকল্প খুঁজছে বাংলাদেশ [২]এমাসেই চীন, পাকিস্তান থেকে আসছে ২০ হাজার টন

আমাদের নতুন সময় : 16/09/2020

লাইজুল ইসলাম, জিসান আহমেদ রাব্বি, অনুজ দেব: [২] রাজধানীর শ্যামবাজারের আল আমিন ট্রেডার্সের মালিক মো. মোহন আলী শেখ বলেন, মঙ্গলবার সকালে দেশী পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৬০-৬৫ টাকায়, বিকেলে বিক্রি হয়েছে ৮০-৮৫। ইন্ডিয়ান পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬০-৬৫ টাকায়।
[৩] কারওয়ান বাজারে দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৯০ টাকায়। ভারতের পেঁয়াজ পাইকারি বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা করে। শুধু রাজধানী নয় সারাদেশেই অতিরিক্ত দামে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ।
[৪] চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরের উদ্ভিদ সংগনিরোধ কেন্দ্রের উপপরিচালক মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান বুলবুল জানান, সেপ্টেম্বর মাসে এপর্যন্ত ৫৪ টি আমদানি অনুমতিপত্র ইস্যু হয়েছে। যার মাধ্যমে মোট ১৯,৮৪৪ মেট্রিক ট্রন পেঁয়াজ আমদানি হবে পাকিস্তান, তুরস্ক, মিয়ানমার, মিশর ও চীন থেকে।
[৫] কাস্টমস হাউজের কমিশনার আজিজুর রহমান বলেন, আলোচনা না করে হঠাৎ পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করাটা ঠিক হয়নি।
[৬] বেনাপোলের আমদানিকারক রয়েল ইসলাম বলেন, হঠাৎ করেই ভারতের রপ্তানিকারকরা পেঁয়াজের দাম টন প্রতি ২৫০ থেকে ৭৫০ ডলার বাড়িয়েছে। যা নিয়ম বর্হিভূত।
[৭] এলসি করা প্রায় ১৫শ টন পেঁয়াজের ট্রাক সীমান্তে অপেক্ষমান রয়েছে। এসব ট্রাক বাংলাদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা নিয়েছে সেদেশের সরকার। সম্পাদনা: বাশার নূরু, সালেহ্ বিপ্লব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]