• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]আলী ইমাম মজুমদারের মতে, মিড ডে মিল তৈরি দেখার জন্য কিছু কর্মকর্তা বিদেশে যেতেই পারেন [২]দ্বিমত পোষণ করে হাফিজউদ্দিন খান বললেন, হাজার কর্মকর্তা বিদেশে না গিয়ে জনাকয়েক বিশেষজ্ঞকে আমরা এদেশে আমন্ত্রণ জানাতে পারি


[১]আলী ইমাম মজুমদারের মতে, মিড ডে মিল তৈরি দেখার জন্য কিছু কর্মকর্তা বিদেশে যেতেই পারেন [২]দ্বিমত পোষণ করে হাফিজউদ্দিন খান বললেন, হাজার কর্মকর্তা বিদেশে না গিয়ে জনাকয়েক বিশেষজ্ঞকে আমরা এদেশে আমন্ত্রণ জানাতে পারি

আমাদের নতুন সময় : 17/09/2020

ভূঁইয়া আশিক : [৩] পুকুর-খাল-কূপ খনন, প্রশিক্ষণ, অভিজ্ঞতা অর্জন, গরুর প্রজনন, আলু ও ধান চাষ শেখা, লিফট, হাতধোয়া প্রকল্প, ভবন দেখার জন্য সরকারি কর্মকর্তাদের ঢালাওভাবে বিদেশ যাওয়ার প্রবণতার কঠোর সমালোচনা করেছেন বিশ্লেষকেরা। তাদের মতে, অহেতুক বিদেশ ভ্রমণে না গিয়ে মানুষকে সেবা দেওয়ার দিকে তাদের মনোযোগী হওয়া উচিত।
[৪] এ বিষয়ে সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব আলী ইমাম মজুমদার বলেন, প্রকল্পগুলো যখন পরিকল্পনা কমিশনে অনুমোদনের জন্য যায় অথবা ক্ষেত্রবিশেষ একনেকে যায়, তখনই তা ভালো করে যাচাই-বাছাই করে দেখা উচিত। তবে কোনো কোনো প্রকল্পে বিদেশে প্রশিক্ষণ দরকার আছে, আবার অনেক ক্ষেত্রেই তা দরকার নেই। তিনি বলেন, প্রকৃত প্রয়োজন বোঝে সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের। তবে অভিজ্ঞতা অর্জনের নামে অনিয়ম-দুর্নীতি হয় কিনা তা কঠোরভাবে নজরদারি করতে হবে। [৫] তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এম হাফিজউদ্দিন খানের মতে, মিড ডে মিল শেখার জন্য বিদেশে হাজারও কর্মকর্তা যাওয়ার চিন্তা বাস্তবসম্মত নয়। তিনি বলেন, সরকার কর্মকর্তাদের খুশি করতে চায়। ফলে পুকুর খনন, অমুক, তমুকের উসিলায় প্রশিক্ষণে যায় তারা। এসব বানানো প্রকল্প, বিদেশ ভ্রমণের একটা সুযোগ সৃষ্টি ছাড়া কিছুই নয়।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]