• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]সিলেট এমসি কলেজ অধ্যক্ষ বললেন, মানবিক কারণে ২৫ জনকে ছাত্রাবাসে থাকতে দিয়েছিলাম


[১]সিলেট এমসি কলেজ অধ্যক্ষ বললেন, মানবিক কারণে ২৫ জনকে ছাত্রাবাসে থাকতে দিয়েছিলাম

আমাদের নতুন সময় : 29/09/2020

আশরাফ চৌধুরী : [২] এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে সিলেট এমসি কলেজ কলেজ ও ছাত্রাবাস বন্ধ থাকার পরও ছাত্রলীগ কর্মীরা ছাত্রাবাসে কিভাবে এমন প্রশ্নের জবাবে সোমবার অধ্যক্ষ সালেহ আহমদ বলেন, যদিও ছাত্রাবাস বন্ধ, কিন্তু কিছু শিক্ষার্থী টিউশনি করত, মানবিক কারণে তাই ছাত্রাবাসে ২৫ জনকে থাকতে দেওয়া হয়েছিল। এখন এ ঘটনার পর সবাইকে ছাত্রাবাস ত্যাগ করতে বলা হয়েছে।
[৩] কলেজ বন্ধ থাকলেও প্রতিদিন আমি ক্যাম্পাসে এসেছি, অফিস করেছি। এখন বলেন- এত বড় একটি ক্যাম্পাস, এই করোনাপরিস্থিতিতে একা আমার পক্ষে দেখভাল করা সম্ভব? আমি একা কত করব? অনেক কষ্ট আছে, দায়িত্বে বসে সবকিছু তো আর বলা যায় না।
[৪] ছাত্রবাসে স্বামীকে আটকে গৃহবধূকে ধর্ষণের ঘটনা প্রসঙ্গে সালেহ আহমদ বলেন, অনাকাঙ্ক্ষিত যে ঘটনা ছাত্রাবাস চত্বরের ভেতরে ঘটেছে, এটাতো আকস্মিক ঘটেছে। কিন্তু পুরো বিষয়টিতে আমরা লজ্জিত।
[৫] তিনি আরও বলেন, দ্রুততার সঙ্গে দোষীদের গ্রেপ্তার করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এদের এখন আইনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। এরপর বিচার করতে হবে, বিচারে আস্থা আনতে হবে। [৬] কলেজে ও ছাত্রাবাসে দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা ছাত্রলীগের নৈরাজ্য ও স্বেচ্ছাচারিতা প্রসঙ্গে সালেহ আহমদ বলেন, আমি তো সব কথা বলতে পারি না। আমার মুখে তালা লাগিয়ে থাকতে হয়। অনেক কিছু আছে আমরা বলতে পারি না। ২০১২ সালে ছাত্রাবাস পুড়িয়ে দেওয়ার পর ৬ কোটি টাকা খরচ করে নতুন ভবন নির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু পোড়ানোর ঘটনার বিচার তো হয়নি। সম্পাদনা: ইকবাল খান




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]