• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » গার্ডিয়ানের মন্তব্য: ট্রাম্পের ট্যাক্স রেকর্ড ফাঁস কি তাকে ডোবাবে?


গার্ডিয়ানের মন্তব্য: ট্রাম্পের ট্যাক্স রেকর্ড ফাঁস কি তাকে ডোবাবে?

আমাদের নতুন সময় : 30/09/2020

মোহাম্মদ আলী বোখারী, টরন্টো থেকে : গত ২৮ সেপ্টেম্বর লন্ডনের গার্ডিয়ান পত্রিকা ‘উইল দ্য নিউইয়র্ক টাইমস টেক্সেস রিপোর্ট সিঙ্ক ডোনাল্ড ট্রাম্প’ শিরোনামযুক্ত মন্তব্য প্রতিবেদনে বলেছে, ট্রাম্প কর ফাঁকির পাশাপাশি ধারাবাহিক ঋণ জর্জরিত। এটাই নিদারুন প্রশ্ন; সম্ভবত সেটাই তার সমর্থকদের তীব্র অনুভূতির বহিঃপ্রকাশ।
আরও লিখেছে, যে মুহুর্তে তার শ্বেতপাথর ও স্বর্ণ খঁচিত ট্রাম্প টাওয়ারের সিড়ি থেকে নেমে ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীতার ঘোষণাটি দেন, তাতে তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী, যিনি তার দেশের অর্থনীতির সমৃদ্ধি ঘটাবেন। এক দশকে তার রিয়েলিটি টিভি শো-তেও সেটা বিধৃত। কিন্তু রোববার তার মুখোশটি উন্মোচনে নিউইয়র্ক টাইমস বিশ্বকে তিনটি বিষয় জানিয়েছে, ট্রাম্প ব্যবসায়ী হিসেবে ভালো না হলেও কর ফাঁকিতে ভালো এবং সম্ভবত বৈদেশিক শক্তির সঙ্গে স্বার্থগত দ্বন্দ্বে আক্রান্ত। এতে তার পুর্ননির্বাচনের বিষয়টি একটা সীমারেখা পর্যন্ত জড়িত। তিনি ১৮ বছরের ১১ বছরই কোনো কর দেননি। ২০১৬-২০১৭ সালে ৭৫০ ডলার কর দেন, যা প্রত্যেক মার্কিন নাগরিকের তুলনায় অপ্রতুল। দৃষ্টিকটু দিকটি হচ্ছে- প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথম দুইবছরে ট্রাম্প বৈদেশিক বাণিজ্য থেকে আয় করেছেন ৭ কোটি ৩০ লাখ ডলার, যার মাঝে ফিলিপাইন থেকে ৩০ লাখ, ভারত থেকে ২০ লাখ ৩০ হাজার এবং তুরস্ক থেকে ১০ লাখ ডলার অন্যতম। এতে ২০১৭ সালে ১,৪৫,৪০০ ডলার ভারতকে এবং ১,৫৬,৮২৪ ডলার ফিলিপাইনকে কর দিলেও নিজ দেশকে দিয়েছেন মাত্র ৭৫০ ডলার। প্রশ্ন জাগে, ট্রাম্প দায়িত্ব লংঘনের পাশাপাশি আইন কী অমান্য করেছেন? অবশ্য নিউইয়র্ক টাইমস আরও তথ্য ফাঁসের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। ফলে তার সমর্থকদের মাঝে সম্বিৎ না জাগলেও বিপুল ভোটারের মাঝে গণজাগরণ ঘটবে।




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]