• প্রচ্ছদ » » পাকিস্তানই সমস্যা সমাধানের অন্তরায় : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান


পাকিস্তানই সমস্যা সমাধানের অন্তরায় : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান

আমাদের নতুন সময় : 26/10/2020

উদিসা ইসলাম : প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেন, বাংলাদেশকে স্বীকৃতি না দিয়ে পাকিস্তান এই উপমহাদেশের মানবিক ও রাজনৈতিক সমস্যার সমাধানে অগ্রগতি ব্যাহত করছে। দুজন পাকিস্তানি সাংবাদিক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য এলে বঙ্গবন্ধু তাদের এ কথা বলেন। পাকিস্তানের ওই দুইজন সাংবাদিক হলেন করাচির ডন পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাজহার আলী খান ও পত্রিকাটির কলামিস্ট সৈয়দ নাজিউল্লাহ। পাকিস্তানের সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই উপমহাদেশে জনগণের কল্যাণের জন্য পাকিস্তানের উচিত অমীমাংসিত সমস্যা সমাধানের ঐতিহাসিক সুযোগের সদ্ব্যবহার করা। প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানের সাংবাদিকদের বলেন, জাতিসংঘ বাংলাদেশের অন্তভর্‚ক্তিতে বাধা সৃষ্টির উদ্দেশে পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক বিষয়গুলোকে অনাবশ্যক ও বেআইনিভাবে জাতিসংঘের বিষয়ভুক্ত করতে চাইছে। তিনি বলেন আটক বাঙালিদের ওপর অমানবিক নির্যাতন ও নিপীড়নের দ্বারা, আটক বাঙালিদের দেশে ফিরতে না দিয়ে পাকিস্তান আবহাওয়া বিষাক্ত করে তুলছে। বাংলাদেশের রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে মিথ্যা অপপ্রচারের মাধ্যমে পাকিস্তান আবহাওয়াকে আরও বিষাক্ত করে বলছে বলেও বঙ্গবন্ধু অভিযোগ করেন।
সম্পূর্ণ ধ্বংসস্তূপের মধ্যে থেকে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক পুনর্গঠন ও রাজনৈতিক অগ্রগতির বিষয়গুলো উল্লেখ করে বঙ্গবন্ধু বলেন, বাংলাদেশে খুব শিগগির তাদের সংবিধান গ্রহণ করছে এবং নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধু বলেন, আমরা এমন দেশে বিধ্বস্ত অর্থনৈতিক পুনর্গঠন ও রাজনৈতিক উন্নতির জন্য কাজ করে যাচ্ছি এবং আমাদের জনগণের কল্যাণ ও সমৃদ্ধির জন্য যেমন আমরা কাজ করছি ঠিক একইভাবে উপমহাদেশের জনগণের সমস্যার সমাধানের জন্য আমরা গঠনমূলক নীতি ও ভ‚মিকা গ্রহণ করছি। পাকিস্তান জনগণের মধ্যে অন্তত কিছু মানুষ যাতে মুক্ত হতে পারেন সেজন্য এ বাস্তবতার খবর তাদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানের সাংবাদিকদের অনুরোধ করেন। উপমহাদেশে বর্তমান অচলাবস্থার অবসান কীভাবে ঘটানো যায় পাকিস্তানি সাংবাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়েও কথা বলেন বঙ্গবন্ধু।
বাংলাদেশের লাখ লাখ পরিবারের মানবিক সমস্যা সমাধানের ব্যাপারে একটা কিছু করার প্রশ্নে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেন, বাংলাদেশের জনগণের মতো এতো বেশি কাউকে ভুগতে হয়নি। এমনকি সাধারণ বুদ্ধিতেই একথা উপলব্ধি করা উচিত যে, আমরা একান্তভাবে মানবিক সমস্যা সমাধানের জন্য উদ্বিগ্ন। তা সে সমস্যা বাংলাদেশ পাকিস্তান অথবা ভারত যে কোনো দেশের হোক না কেন। আটক বাঙালিদের ফেরাতে সব করা হবে পাকিস্তানে আটক বাঙালিদের সম্পর্কে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিশ্চয়তা প্রদান করেন যে পাকিস্তানে আটক বাঙালিদের ফিরিয়ে আনার জন্য সরকার সম্ভাব্য সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। ১৯৭২ সালের ২৫ অক্টোবর পরিষদ ভবনে প্রধানমন্ত্রী তার কক্ষে একটি মহিলা প্রতিনিধিদলকে এই আশ্বাস প্রদান করেন। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব থাকা ব্যক্তি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান যে, এই ধরনের নাজুক সমস্যার ব্যাপারে সরকারের ওপর আস্থা রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী তাদের আহŸান জানিয়েছেন। রবার্ট পাকিস্তানে রেডিও পাকিস্তানের খবরে প্রকাশ জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল রবার্ট জ্যাকসন প্রেসিডেন্ট ভুট্টোর সঙ্গে এইদিনে সাক্ষাৎ করেন এবং জাতিসংঘ মহাসচিবের বাণী তাকে প্রদান করেন।
উক্ত খবরে বলা হয়, উল্লিখিত বাণীটি বাংলাদেশ সম্পর্কিত। এর আগে বিমানবন্দরে পৌঁছে জ্যাকসন সাংবাদিকদের নিকট পাকিস্তানে আটক বাঙালিদের অবস্থা দেখার জন্য আসার কথা অস্বীকার করেন। কমিউনিস্ট নেতাদের বঙ্গবন্ধুর আশ্বাস, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির নেতাদের আশ্বাস দেন যে তাদের প্রত্যেকটি যুক্তিসঙ্গত সংশোধনী খসড়া শাসনতন্ত্রে গ্রহণ করা হবে। আওয়ামী লীগ সংসদীয় দলের চিফ হুইপ শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন দাবি নিয়ে আসা মিছিলকারীদের কাছে এ কথা জানান। তিনি বঙ্গবন্ধুর পক্ষে তাদের সামনে বক্তৃতা করেন এবং আশ্বাস দেন। এর আগে দলটির সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল গণপরিষদ ভবনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। তারা পার্টির পক্ষ থেকে তাদের করা একটি সংশোধনী পুস্তিকা বঙ্গবন্ধুর হাতে দেন। বাংলাট্রিবিউন




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]