• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]১০ লাখ ব্যক্তিকে জরুরিভিত্তিতে সিনোফার্মের করোনাভ্যাকসিন দিয়েছে চীন


[১]১০ লাখ ব্যক্তিকে জরুরিভিত্তিতে সিনোফার্মের করোনাভ্যাকসিন দিয়েছে চীন

আমাদের নতুন সময় : 21/11/2020

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] চীনের রাষ্ট্রায়াত্ত¡ কোম্পানিটির চেয়ারম্যান নিজেই এই তথ্য জানান। রাশিয়ার বাইরে চীনই একমাত্র দেশ, যারা নিজেদের পরীক্ষাধীন ভ্যাকসিনকে জরুরী ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। তবে এই ভ্যাকসিনগুলোর নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন পশ্চিমা বিশেষজ্ঞরা। সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট
[৩] সিনোফার্মের চেয়ারম্যান লিউ জিংঝেন বলেন, ‘জরুরি ব্যবহারের কথা বললে, এই ভ্যাকসিন প্রায় ১০ লাখ মানুষকে দেয়া হয়েছে। আমরা একটিও ঘটনা পাইনি যেখানে বড় ধরণের শারীরিক বিচ্যুতি ঘটেছে। গ্রহীতাদের খুব সামান্য লক্ষণ ছিলো। এখন পর্যন্ত পুরো টিকাদান কার্যক্রমই জরুরি ভিত্তিতে হচ্ছে। আমরা এই ব্যাপারে বিশ্বকে নেতৃত্ব দিচ্ছি। সিচুয়ান
[৪] অবশ্য এখন পর্যন্ত ঠিক কতোজন ভ্যাকসিন নিয়েছেন তা পরিস্কার নয়। তবে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো টিকাদান কেন্দ্রের সামনে বড় লাইনের ছবি প্রকাশ করেছে। চীন বলছে, যাদের জরুরীভাবে এই ভ্যাকসিন প্রয়োজন বা যে গ্রæপগুলো করোনার ঝুঁকিতে রয়েছে, তাদেরই এই ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে। গেøাবাল টাইমস
[৫] দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, সারা বিশ্বেই ট্রায়াল শেষের আগে এতো মানুষকে ভ্যাকসিন দেবার ঘটনা আগে ঘটেনি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নিজ নাগরিকদের নিরাপত্তা নিয়ে এক রকম জুয়াই খেলেছে বেইজিং।
[৬] এখন পর্যন্ত ৪টি কোম্পানি ৩য় ধাপের ট্রায়ালের মধ্যবর্তী ও চুড়ান্ত ফল প্রকাশ করেছে। একমাত্র ফাইজার/বায়োএনটেক নিজেদের ভ্যাকসিনের চুড়ান্ত ফল প্রকাশ করে বলছে তা ৯৫ শতাংশ কার্যকর। রাশিয়া বলছে তাদের স্পুৎনিক-৫ ৯২ শতাংশ কার্যকর। আর মার্কিন কোম্পানি মর্ডানা নিজেদের ভ্যাকসিনকে ৯৪ শতাংশ কার্যকর ঘোষণা করেছে। অক্সফোর্ড বলছে তাদের ভ্যাকসিন বয়স্কদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরিতে সক্ষম। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]