• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]জলবায়ু পরিবর্তনজনিত আতঙ্ক পুঁজি করে লাভবান হচ্ছে পুঁজিপতিরাই, আরটিকে বললেন, ‘স্কেপটিক্যাল এনভায়রোমেন্টালিস্ট’ বোজর্ন লমবর্গ


[১]জলবায়ু পরিবর্তনজনিত আতঙ্ক পুঁজি করে লাভবান হচ্ছে পুঁজিপতিরাই, আরটিকে বললেন, ‘স্কেপটিক্যাল এনভায়রোমেন্টালিস্ট’ বোজর্ন লমবর্গ

আমাদের নতুন সময় : 22/11/2020

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] নিজেকে স্কেপটিকাল এনভারোমেন্টালিস্ট বলে দাবি করেন লমবর্গ। এর অর্থ এমন এক পরিবেশবিদ, যিনি খুব সহজে কোনও তত্ত¡ বিশ্বাস করেন না। চান নিরেট প্রমাণ। লমবর্গ মনে করেন, জলবায়ুর পরিবর্তন নিয়ে যেসব তত্ত¡ ও সমাধান বাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছে সেগুলোর সব কিছুই বিশ্বাস করে ফেলার সুযোগ নেই।
[৩] লমবার্গের মতে জলবায়ু সমস্যা আছে এই ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই। অন্য অনেকের মতো এটিকে পুরোপুরি অস্বীকার করে বসাটা হবে একেবারে অন্যায় একটি বিষয়। তবে যেভাবে একটা শ্রেনী স্ব স্বার্থে আতঙ্ক তৈরি করছে তা ঠিক নয়। তার মতে একটি শ্রেণী একে কেন্দ্র করে ব্যবসা করছে। [৪] উদাহরণ হিসেবে টেসলার কথা তুলে ধরেন তিনি। তার মতে টেসলার গাড়ির দাম বেশি। নিজেদের জলবায়ু দরদি বোঝাতে অনেকেই এই গাড়িগুলো কিনছেন। কিন্তু টেসলাও পরিবেশ দূষণ করে। এই গাড়ি ব্যবহারের সময় দূষণ কমে ৩ ভাগের একভাগ। এটি ভালো ব্যাপার হলো, অতিরিক্ত অর্থের তুলনায় তা যথেষ্ঠ নয়।
[৫] গ্রেটা থনবার্গের উত্থানকে একসব কোম্পানির বাই প্রোডাক্ট বলে মনে করেন এই ডেনিশ বিজ্ঞানী। তিনি পরিবেশ নিয়ে তরুণদের কথা বলাকে সাধুবাদ জানালেও মনে করেন, পশ্চিমা কোম্পানিগুলো যেভাবে চায়, সেভাবেই কথা বলেন গ্রেটা। সম্পাদনা : রাশিদ




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]