• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]বাইডেনের বিজয়কে স্বীকৃতি দিলেন জর্জিয়ার গভর্নর, ফলাফল বদলাতে রাজ্য সরকার ও রিপাবলিকান নেতাদের চাপ দিচ্ছেন ট্রাম্প


[১]বাইডেনের বিজয়কে স্বীকৃতি দিলেন জর্জিয়ার গভর্নর, ফলাফল বদলাতে রাজ্য সরকার ও রিপাবলিকান নেতাদের চাপ দিচ্ছেন ট্রাম্প

আমাদের নতুন সময় : 22/11/2020

লিহান লিমা: [২] যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাটেলগ্রাউন্ড স্টেট জর্জিয়ার রিপাবলিকার গর্ভনর ব্র্যান্ড রাফেনস্পার্গার স্থানীয় সময় শুক্রবার ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেনের বিজয়ের ঘোষণা দিয়ে বলেন, ‘অন্য সব রিপাবলিকানদের মতো আমি হতাশ, আমাদের প্রার্থী এই অঙ্গরাজ্যের ইলেক্টোরাল ভোট পান নি।’। বিবিসি/গার্ডিয়ান/ডেইলি মেইল। [৩]বাইডেন এই রাজ্যে ট্রাম্পের চেয়ে ১২ হাজার ৬৭০ ভোট বেশি পেয়েছেন। ১৯৯২ সালে বিল ক্লিনটনের পর এই প্রথম কোনো ডেমোক্রেট প্রার্থী জর্জিয়ায় জয় লাভ করলো। [৪] তবে নির্বাচনের ফলাফলকে নিজের পক্ষে নিতে সব ধরণের ক্ষমতা প্রয়োগ করেছেন ট্রাম্প। মিশিগান, পেনসেলভেনিয়াসহ অন্যান্য ব্যাটেলগ্রাউন্ড অঙ্গরাজ্যের রিপাবলিকান আইনপ্রণেতাদের হোয়াইট হাউসে বৈঠকের জন্য ডেকে পাঠিয়েছেন তিনি। [৫] ট্রাম্পের সঙ্গে হোয়াইট হাউসে বৈঠকের পর মিশিগানের সিনেটর মাইক সিরকি ও হাউসের স্পিকার লি চার্টফিল্ড যৌথ বিবৃতিতে বলেন, ‘আমরা এখন পর্যন্ত এমন কোনে প্রমাণ পাইনি যা কিনা মিশিগানে নির্বাচনের ফলাফল পরিবর্তন করতে পারে। মিশিগানে ইলেক্টর নির্বাচনে স্বাভাবিক প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে। কোনো ধরণের চাপ, প্রভাব ও হুমকি ব্যতিত আমরা নির্বাচনের বিজয়ী ঘোষণা করবো।’ [৬] রিপাবলিকান সিনেটর মিট রমনি টুইটে বলেছেন, ‘নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ আদালতে প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়ে প্রেসিডেন্ট এখন রাজ্য ও স্থানীয় কর্মকর্তাদের নির্বাচনের ফলাফল বদলে দিতে চাপ প্রয়োগ করছে। একজন মার্কিন প্রেসিডেন্ট কর্তৃক এমন অগণতান্ত্রিক পদক্ষেপ চিন্তা করাও অকল্পনীয়।’ [৭] সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন শুক্রবার টুইট করেছেন, ‘একজন ব্যক্তির দম্ভের জন্য আমাদের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে ক্ষতিগ্রস্ত করার কোনো মানে নেই।’সম্পাদনা: আসিফুজ্জামান পৃথিল




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]