• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]আইসিটি খাতের ফ্রিল্যান্সারদের পরিচয়পত্র দেয়ার প্রকল্প উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী বললেন, অধিকসংখ্যক মানুষের কর্মসংস্থান করাই সরকারের লক্ষ্য


[১]আইসিটি খাতের ফ্রিল্যান্সারদের পরিচয়পত্র দেয়ার প্রকল্প উদ্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী বললেন, অধিকসংখ্যক মানুষের কর্মসংস্থান করাই সরকারের লক্ষ্য

আমাদের নতুন সময় : 26/11/2020


সালেহ্ বিপ্লব: [২] তথ্যপ্রযুক্তি খাতে যারা ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করেন, তাদেরকে কর্মজীবী হিসেবে মেনে নেয় না অনেক মানুষ। তারা যে বাসায় বসেই আয় করছেন, সরকারকেও বৈদেশিক মুদ্রা এনে দিচ্ছেন, সেটা সামাজিক স্বীকৃতি পায়নি এখনও। ফ্রিল্যান্সারদের কাজকে সামাজিক ও প্রাতিষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়ার লক্ষ্যেই পরিচয়পত্র দেয়ার এ উদ্যোগ।
[৩] তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ আয়োজিত এ অনুষ্ঠান ছিলো বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল মিলনায়তনে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে অনলাইনে যুক্ত হন। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি বিনিয়োগ ও শিল্প বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ও আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এম এম জিয়াউল হাসান। [৪] শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের ছেলেমেয়েরা খুব মেধাবী। পথ দেখিয়ে দিলেই তার সাফল্য বয়ে আনতে পারে। আইসিটি খাতে শিল্প বিকাশের পদক্ষেপ যেমন নিয়েছি, তেমনি দক্ষ জনবল সৃষ্টির কাজও শুরু করি। আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে তরুণদের প্রশিক্ষণ দেয়ার উদ্যোগ নেয়া হয়। [৫] করোনায় অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড কিন্তু স্থবির হয়ে পড়ার কথা। ডিজিটাল বাংলাদেশ হয়েছে বলেই আমি ঘরে বসে কাজে অংশ নিতে পারছি।
[৬] তিনি বলেন, ফ্রিল্যান্সিং আমাদের অর্থনীতিতেও বিরাট আকারে ভূমিকা রাখবে। সশরীরে যারা বিদেশে কাজ করে রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছে, ফ্রিল্যান্সারদের মাধ্যমে আসা বৈদেশিক মুদ্রাও রেমিট্যান্স হিসেবে বিবেচিত হবে। নিজের বস নিজে, আত্মমর্যাদা নিয়ে কাজ করবে। সম্পাদনা : সমর চক্রবর্তী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]