[১] ফুটবল কিংবদন্তি দিয়াগো ম্যারাডোনা মারা গেছেন, প্রধানমন্ত্রীর শোক

আমাদের নতুন সময় : 26/11/2020

এল আর বাদল : [২] বুধবার রাতে ক্রীড়াবিশ্বকে স্তব্ধ করে দিয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি। তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
[৩] এদিকে আর্জেন্টিনার সংবাদ মাধ্যম নিউজ আউটলেট ক্লারিন জানায়, তিগ্রেতে নিজ বাসায় হার্ট অ্যাটাক হয় তার। হাসপাতালে নেয়ার পর পরই তার মৃত্যু হয়। ৬০ বছরেই তাই অতীত গেলেন বিশ্ব ফুটবলের রোমাঞ্চ ছড়ানো এই কিংবদন্তি।
[৪] নভেম্বরের প্রথম দিকে মস্তিষ্কে রক্তজমাট বাঁধার কারণে অস্ত্রোপচার হয়েছিল ম্যারাডোনার। হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরার দুই সপ্তাহ পর তার মৃত্যু হলো। সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার ম্যারাডোনা আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতান ১৯৮৬ সালে। খেলেছেন তার দেশে বোকা জুনিয়র্স, ইতালির নাপোলি ও স্পেনের বার্সেলোনায়।
[৫] ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ‘বিতর্কিত’ ‘ঈশ্বরের হাত’ দিয়ে গোল করেন তিনি। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারের ৮ দিন পর গত ১১ নভেম্বর হাসপাতাল ছাড়েন ম্যারাডোনা। বুধবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বেসরকারি ওলিভোস ক্লিনিক থেকে তাকে বাড়িতে ফেরানো হয়। ওই সময় তাকে একনজর দেখার জন্য অগণিত দর্শক ভিড় করে এবং তারা ছবি তোলে।
[৬] তাকে বহনকারী অ্যাম্বুলেন্সের পেছন পেছন ছুটতে থাকেন আর্জেন্টাইন টিভি সাংবাদিকরা। তার আইনজীবী মাতিয়াস মোরলাহাস বলেন, অ্যালকোহল আসক্তি কাটানোর জন্য চিকিৎসা চলছিলো। বিশ্বকাপ জয়ী ম্যারাডোনা সম্প্রতি স্বদেশী ক্লাব জিমন্যাসিয়ার কোচ হন।
[৭] গত কয়েক বছর ধরে স্বাস্থ্য জটিলতায় ভুগছিলেন ম্যারাডোনা। ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়কের পাকস্থলীর অভ্যন্তরে রক্তক্ষরণের কারণে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে, ঘটনাটি ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে। ২০১৮ সালের বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা ও নাইজেরিয়ার ম্যাচে অসুস্থবোধ করায় খেলা শেষ পর্যন্ত দেখতে পারেননি তিনি। এএফপি/ নিউজ আউটলেট ক্লারিন/ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। সম্পাদনা: সমর চক্রবর্তী




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]