• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]বাংলাদেশে নিম্নতম মজুরি বিশ্বস্বীকৃত দারিদ্র্যসীমার নিচে: আইএলও [২]মালিকরা শ্রমিকের মজুরি কমিয়ে তা অন্য খাতে ব্যয় করে: ড. দেবপ্রিয়


[১]বাংলাদেশে নিম্নতম মজুরি বিশ্বস্বীকৃত দারিদ্র্যসীমার নিচে: আইএলও [২]মালিকরা শ্রমিকের মজুরি কমিয়ে তা অন্য খাতে ব্যয় করে: ড. দেবপ্রিয়

আমাদের নতুন সময় : 04/12/2020


আসিফুজ্জামান পৃথিল: [৩] বাংলাদেশে ন্যূনতম মজুরি মাত্র ১৮ ডলার। এর চেয়ে কম মজুরি শুধু আফ্রিকার ৩ অতি দরিদ্র দেশ রুয়ান্ডা, বুরুন্ডি আর উগান্ডায় এবং ইউরোপের দরিদ্রতম ও ক্ষুদ্র অর্থনীতির দেশ জর্জিয়ায়। আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) বার্ষিক মজুরি প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।
[৪] আইএলও বলছে, করোনা মহামারী চলমান থাকলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হবে ন্যূনতম মজুরিধারীদের। বিশেষত যেসব দেশ সেক্টর অনুযায়ী মজুরি ঠিক করে, সেসব দেশের শ্রমিকরা বেশি ক্ষতির মুখে পড়বে। বাংলাদেশও এই ক্যাটাগরিতে পড়ে। করোনার ধাক্কা থেকে শ্রমিকদের বাঁচাতে ন্যূনতম মজুরি নিশ্চিত করার তাগিদ দিয়েছে আইএলও। [৫] এ ব্যাপারে অর্থনীতিবিদ ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেছেন, বাংলাদেশে ব্যবসার খরচ অনেক বেশি। এই খরচ কমাতে অনেকটাই ভর্তুকি দিতে হয় শ্রমিককে অর্থাৎ শ্রমিকের মজুরি কমানো হয়। আর এদেশের শ্রমিকদের কণ্ঠস্বর ভীষণ দুর্বল ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল দ্বারা পরিচালিত। এ কারণে শ্রমিকরা নিজেদের অধিকারও আদায় করে নিতে পারেন না।
[৬] আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতি ৩টি দারিদ্রসীমা রয়েছে। সর্বনিম্নটি হচ্ছে দৈনিক আয় ১.৮ ডলার। বাংলাদেশি শ্রমিকদের গড় ন্যূনতম মজুরি এর চেয়েও অনেক নিচে। এমনকি বিধ্বস্ত অর্থনীতির দেশ পাকিস্তানেও ন্যূনতম গড় মজুরি ১১৭ ডলার, যা বাংলাদেশের চেয়ে ৯৯ ডলার বেশি। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]