• প্রচ্ছদ » » ১৪ জানুয়ারি ১৯৭২ : জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু


১৪ জানুয়ারি ১৯৭২ : জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু

আমাদের নতুন সময় : 16/01/2021

জাফর ওয়াজেদ : প্রধানমন্ত্রী শেখ মুজিবুর রহমান রাষ্ট্রপতি ভবনে দেশি-বিদেশি জনাকীর্ণ এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেছেন তিনি একনায়ক নন, তিনি গণতন্ত্রে বিশ্বাসী এবং সমাজতন্ত্র কায়েম করবেন গণতন্ত্রের মাধ্যমেই। তার সরকার সংবিধান প্রণয়নের কাজ দ্রæততার সঙ্গে করে যাচ্ছেন। সময় নষ্ট না করে শীঘ্রই গণপরিষদের অধিবেশন আহŸান করা হচ্ছে এবং খসড়া সংবিধান সেখানে পেশ করা হবে। ভুট্টো বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দানকারী সকল দেশের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের যে হুমকি দিয়েছেন সে প্রসঙ্গে তার মতামত জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আমি লন্ডনেই বলেছি বাংলাদেশ একটি স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশ। এটি টিকে থাকার জন্যই হয়েছে। পাকিস্তানের সঙ্গে যুক্ত থাকার কোনো প্রশ্নই আসে না। তিনি আশা করেন ভুট্টো স্বাধীন বাংলাদেশ মেনে নেবেন। একই সঙ্গে চীনও বাংলাদেশের অস্তিত্ব স্বীকার করে নিবে। পাকিস্তানে আটক সকল বাঙালিকে দ্রæত ফেরত আনার জন্য তার সরকার কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন যোগ্য লোকদের নিয়েই পরিকল্পনা কমিশন গঠন করা হয়েছে? তারা দেশ পুনর্গঠনের একটি বøæ প্রিন্ট তৈরি করছেন। তিনি বলেন, যারা পাকবাহিনীর দোসর ছিলেন তাদের বিচারের আওতায় নেয়া হবে। ৯ মাসের সংগ্রামে ৩০ লাখ বাঙালি শহীদ হয়েছেন। তিনি আরও বলেন তার দেশ শর্তহীন বিদেশি সাহায্য গ্রহণ করবে। বাংলাদেশে আন্তজার্তিক মানবিক সংস্থা সমূহকে কাজ করার আমন্ত্রণ জানান। তিনি মুক্তিযুদ্ধে সকল শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। মুক্তিযুদ্ধে সহায়তাকারী রাষ্ট্র ও ব্যক্তির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। বাংলাদেশ সরকার যখন মনে করবে তখনি ভারত সরকার বাংলাদেশ থেকে তাদের সৈন্য প্রত্যাহার করে নিবে। কিছু দিনের মধ্যেই তিনি কলকাতা সফরে যাবেন। যুক্ত বাংলা ধারণা তিনি প্রত্যাখ্যান করে বলেন পশ্চিম বাংলা ভারতের অংশ। সম্মেলনে রবীন্দ্রনাথের উদয়ের পথে শুনি কার বানী কবিতা আবৃত্তি করে বক্তব্য শেষ করেন। ফেসবুক থেকে




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]