• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]ডোপ টেস্টের মুখোমুখি হচ্ছেন রক্ষীসহ কারাগারের সব স্টাফ [২]মোটিভেট করা হচ্ছে মাদকাসক্ত কারাবন্দিদের


[১]ডোপ টেস্টের মুখোমুখি হচ্ছেন রক্ষীসহ কারাগারের সব স্টাফ [২]মোটিভেট করা হচ্ছে মাদকাসক্ত কারাবন্দিদের

আমাদের নতুন সময় : 17/01/2021

ইসমাঈল ইমু ও সুজন কৈরী : [৩] দেশের ৬৮ টি কারাগারে প্রায় ৭০ হাজার বন্দি রয়েছেন। এরমধ্যে ২৫ হাজার বন্দী মাদক মামলার আসামী। মাদক মামলায় বন্দীদের বেশিরভাগই মাদকাসক্ত। [৪] বন্দীদের পাশাপাশি বিভিন্ন সময়ে কারারক্ষীদের বিরুদ্ধে মাদক সেবন ও মাদক ব্যবসার অভিযোগ রয়েছে। ইতিমধ্যে মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে বেশ কয়েকজন কারারক্ষীকে বরখাস্ত ও তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কারারক্ষীসহ কারাগারের স্টাফদের বিরুদ্ধে মাদকাসক্তের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাদের ডোপ টেষ্ট করার উদ্যোগ নিয়েছে কারা অধিদপ্তর।[৫] কারা অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, কারাগারের স্টাফ ও কারারক্ষীদের ডোপ টেস্টের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ে চিঠি দিয়েছে কারা অধিদপ্তর। মাদকাসক্ত কারারক্ষী ও স্টাফদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও অনুরোধ করা হয়েছে। [৬] সূত্র জানায়, ঢাকা কেন্দ্রিয় কারাগারের ৮ হাজার বন্দির মধ্যে ৩ হাজার বন্দীই মাদকাসক্ত। বন্দীদের সুপথে ফিরিয়ে আনার জন্য দেশের কোনো কারাগারে মাদকাসক্ত নিরাময় কেন্দ্র নেই। আবার কারাগারের স্টাফ, কারারক্ষী ও মাদক মনিটরিং টিমের সদস্যদের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসা চালানোর অভিযোগ রয়েছে। [৭] কারা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা বলছেন, আহছানিয়া মিশন, জিআইজেড ও আইসিআরসি এ ব্যাপারে প্রকল্প হাতে নিয়েছে। সম্প্রতি আহছানিয়া মিশন মাদক বিষয়ে বন্দীদের মোটিভেশন করার জন্য সেমিনার ও ওয়ার্কশপ পরিচালনা করেছে। তারা কারারক্ষীদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে যে কিভাবে মাদকাসক্ত বন্দীদেরকে মাদক থেকে নিরাময় করা যায়। সম্পাদনা: রায়হান রাজীব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]