• প্রচ্ছদ » প্রথম পাতা » [১]পাঠ্যপুস্তকে যৌনতা শব্দ ব্যবহারের পরিবর্তে সমাজে নৈতিক শিক্ষার বিস্তার ও সংস্কৃতিচর্চার মধ্য দিয়েই ধর্ষণ সমস্যার সমাধান করতে হবে, বললেন ড. জিনাত হুদা


[১]পাঠ্যপুস্তকে যৌনতা শব্দ ব্যবহারের পরিবর্তে সমাজে নৈতিক শিক্ষার বিস্তার ও সংস্কৃতিচর্চার মধ্য দিয়েই ধর্ষণ সমস্যার সমাধান করতে হবে, বললেন ড. জিনাত হুদা

আমাদের নতুন সময় : 17/01/2021

তানিমা শিউলি: [২] এই সমাজবিজ্ঞানী আরও বলেন, পাশ্চাত্যের দর্শন অনুসরণ করে আমাদের দেশে কোনো ধরনের শিক্ষা ব্যবস্থায় পরিবর্তন আনার ঠিক সময় এখন নয়। আমাদের সামাজিক অবস্থান, ধর্মীয় অনুশাসনের বাইরে গিয়ে হুট করে নতুনভাবে যৌনতা নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করার প্রয়োজন নেই।
[৩] আমাদের রাষ্ট্রীয় এবং সামাজিকভাবে ধীরে ধীরে সংস্কার আনতে হবে। আমাদের মেয়েদের বাইরে যেতে হলে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে হয়। পাশ্চাত্যে কিন্তু সেটা নিয়ে চিন্তা করতে হয় না। আমাদের দেশের প্রশাসনকে আরও দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে হবে।
[৪] এখনো অনেক পরিবার আছে যারা পুত্র ও কন্যাসন্তান নিয়ে বিভেদ করে। এই জায়গা থেকে আমাদের বের হতে হবে। দেশের সামাজিক অবস্থানের দিক বিবেচনায় রেখে নৈতিক মূল্যবোধের জায়গাটায় বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। নারী-পুরুষের পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের জায়গাটা তৈরি করতে হবে শিক্ষার মাধ্যমে।
[৫] ধর্ম এবং আইনের দৃষ্টিতে নারী-পুরুষের সঠিক অবস্থান তুলে ধরতে হবে। নারীদের সম্পত্তি নিয়ে যে বৈষম্য আছে সেটা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। মা-বাবার দায়িত্ব শুধু ছেলেরা নেবেÑ এই ধারণা সমাজ থেকে দূর করতে হবে।
[৬] যৌনতা নিয়ে উন্মুক্ত আলোচনা করে আসলে এদেশে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে না। এতে করে আরও নৈতিক অবক্ষয় শঙ্কা আছে। ইন্টারনেটে যৌনতা সংশ্লিষ্ট সবকিছু পাওয়া যাচ্ছে। এতে করে সমাজে বিশৃঙ্খলা তৈরি হচ্ছে। সম্পাদনা: রায়হান রাজীব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]