• প্রচ্ছদ » শেষ পাতা » [১]মার্কিন ইতিহাসে সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন পারিবারিক বিপর্যয়ের কারণে দুবার রাজনীতি থেকে দূরে সরে যেতে চেয়েছিলেন [২]তিনি প্রেমিক হিসেবে অতুলনীয়: জিল বাইডেন


[১]মার্কিন ইতিহাসে সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন পারিবারিক বিপর্যয়ের কারণে দুবার রাজনীতি থেকে দূরে সরে যেতে চেয়েছিলেন [২]তিনি প্রেমিক হিসেবে অতুলনীয়: জিল বাইডেন

আমাদের নতুন সময় : 20/01/2021

দেবদুলাল মুন্না: [৩] গত বছরের নভেম্বরেই বাইডেনের বয়স হয়েছিলো ৭৮ বছর। এর আগে আমেরিকার সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্ট ছিলেন ট্রাম্প। শপথ নেওয়ার সময় তার বয়স ছিল ৭০। [৪] বাইডেন সিনেটর নির্বাচিত হবার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই গাড়ি দুর্ঘটনায় তার স্ত্রী নেলিয়া ও কন্যা নাওমির মৃত্যু হয়। তখন রাজনীতি ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দলের জোরাজুরিতে হাসপাতালেই সিনেটর পদে শপথ নেন। [৫] ১৯৭৭ সালে জিল জেকবসকে বিয়ে করেন বাইডেন। তাদের একটি কন্যা রয়েছে, নাম অ্যাশলি। পারিবারিক জীবনে আবার বিপর্যয় আসে ২০১৫ সালে, তখন তিনি ভাইস প্রেসিডেন্ট। ব্রেন টিউমারজনিত জটিলতায় মারা যায় তার ছেলে জোসেফ। তখনও রাজনীতি থেকে সরে পড়তে চেয়েছিলেন তিনি। পলিটিকো, বিবিসি। [৬] ডয়েচে ভেলে জানায়, ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিসাবে লড়ার পরিকল্পনা থাকলেও পরিবারকে সময় দিতে নির্বাচন থেকে সরে আসেন বাইডেন। [৭] ২০২০ সালের মার্চ মাসে টারা রিড অভিযোগ আনেন, ১৯৯৩ সালে জো বাইডেন তাকে যৌন নির্যাতন করেছিলেন। সিনেটর থাকাকালীন বাইডেনের অফিসে সহযোগী হিসাবে কাজ করতেন রিড। কিন্তু অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি। সিবিএস টেলিভিশনকে সে সময় দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জিল বাইডেন বলেছিলেন, বাইডেন নারীকে মানুষ হিসেবে শ্রদ্ধা করতে পারেন। তার সংসার করতে পারছি বলেই হয়তোবা এখনও আমি সাধারণ একজন চাকুরিজীবী। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব




সর্বশেষ সংবাদ

সম্পাদক ও প্রকাশক ঃ নাঈমুল ইসলাম খান

১৩২৭, তেজগাঁও শিল্প এলাকা (তৃতীয় তলা) ঢাকা ১২০৮, বাংলাদেশ। ( প্রগতির মোড় থেকে উত্তর দিকে)
ই- মেইল : [email protected]